ত্রিপুরা

ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেস ভবনে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের ১৩৬ তম প্রতিষ্ঠাতা দিবস মর্যাদার পালিত হলো।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক,ত্রিপুরা : আজ আগরতলা পোস্ট অফিস সংলগ্ন ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেস ভবনে সদর জেলা কংগ্রেস কমিটির উদ্যোগে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের ১৩৬ তম প্রতিষ্ঠাতা দিবস যথাযথ মর্যাদার সহিত পালিত করা হয়। উপস্থিত ছিলেন ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি পীযুষ কান্তি বিশ্বাস সহ অন্যান্যরা। এদিন ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বলেন যে,ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস ভারতীয় প্রজাতন্ত্রের একটি জাতীয় রাজনৈতিক দল। ১৮৮৫ সালে থিওজোফিক্যাল সোসাইটির কিছু সদস্য কংগ্রেস প্রতিষ্ঠা করেন।এরা হলেন, অ্যালান অক্টোভিয়ান হিউম,দাদাভাই নওরোজি,দিনশ এদুলজি ওয়াচা,উমেশচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়,সুরেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়,মনমোহন ঘোষ সহ প্রমুখ ব্যাক্তিরা।ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনে জাতীয় কংগ্রেস নেতৃত্ব দান করেছিল।১৯৪৭ সালে ভারত স্বাধীনতা অর্জন করলে কংগ্রেস দেশের প্রধান রাজনৈতিক দলে পরিনত হয়।সেই থেকে মূলত নেহরু গান্ধী পরিবারই কংগ্রেসকে নেতৃত্ব দান করতে থাকেন। এছাড়াও ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেস ভবনে ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি পীযূষকান্তি বিশ্বাস বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলনে মিলিত হন। এদিন তিনি বলেন যে,আজ ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের ১৩৬ তম প্রতিষ্ঠা দিবস।এদিন প্রদেশ কার্যালয় সহ বিভিন্ন জায়গায় নানান ধরনের কর্মসূচী পালন করা হবে। তার পাশাপাশি আগরতলা পুরনিগমের নির্বাচন অতি শীঘ্রই ঘোষনা করার দাবী সহ বিভিন্ন ইস্যুতে মিছিল সংগঠিত করবে কংগ্রেস।ডেপুটেশন দেওয়া হবে প্রশাসকের কাছে। প্রদেশ কার্যালয়ে আহুত এক সাংবাদিক সম্মেলনে কথা বলতে গিয়ে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি পীযুষ কান্তি বিশ্বাস কৃষি আইনের বিরোধীতা এবং প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া বক্তব্যের পাল্টা জবাব দেন। তিনি বলেন, ‘এটা জুমলা, বিজেপির আমলে কৃষকদের আত্মহত্যার ঘটনা বেড়েছে।’ প্রসঙ্গত এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে বাপ্টু চক্রবর্তী,সুমন লস্কর,রাহুল সাহা সহ অন্যান্য কংগ্রেস নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × three =

Back to top button