ত্রিপুরা

যথাযথ মর্যাদায় তেলিয়ামুড়ার বিভিন্ন এলাকায় উদযাপিত হলো ৭৬তম জনশিক্ষা দিবস।

নিজস্ব প্রতিনিধি, তেলিয়ামুড়া : যথাযথ মর্যাদায় তেলিয়ামুড়ার বিভিন্ন এলাকায় উদযাপিত হলো ৭৬তম জনশিক্ষা দিবস। এই উপলক্ষ্যে এদিন জিএমপি-র সংশ্লিষ্ট অঞ্চল কমিটির উদ্যোগে ব্রহ্মছড়া-গকুলনগর, পুলিনপুর, মহারাণী প্রভৃতি এলাকায় হয় সংগঠনের পতাকা উত্তোলন। পর হয় জনশিক্ষা আন্দোলনের প্রয়াত নেতৃত্ব সুধন্য দেববর্মা, হেমন্ত দেববর্মা, দশরথ দেব প্রমুখদের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান। পরে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে হয় নীরবতা পালন। কোথাও কোথাও মোমবাতি প্রজ্বোলন সহ খেলাধূলাও হয়। দুপুরে সিপিআই(এম) তেলিয়ামুড়া মহকুমা অফিসে হয় হলসভা। এতে উপস্থিত ছিলেন জিএমপি-র কেন্দ্রীয় কর্ম পরিষদের সদস্য তথা সিপিআই(এম) তেলিয়ামুড়া মহকুমা সম্পাদক হেমন্ত কুমার জমতিয়া, সিপিআই(এম) রাজ্য কমিটির সদস্য মনীন্দ্র দাস, মহকুমা নেতৃত্ব গৌরী দাস, সুভাষ নাথ, দীপক দাস প্রমুখ। হলসভায় প্রধান বক্তার ভাষণে জিএমপি-র কেন্দ্রীয় কর্ম পরিষদের সদস্য তথা সিপিআই(এম) তেলিয়ামুড়া মহকুমা সম্পাদক হেমন্ত কুমার জমাতিয়া বলেন, রাজন্য আমলে শিক্ষার তেমন প্রসার ঘটেনি। তখন ছিল হাতে গোনা কয়েকটি মাত্র স্কুল। আর তাই এই রাজ্যে শিক্ষার সম্প্রসারণের জন্য কয়েকজন শিক্ষিত যুবক এগিয়ে এসেছিলেন। তাদের মধ্যে সুধন্য দেববর্মা, হেমন্ত দেববর্মা, দশরথ দেব প্রমুখরা ছিলেন অন্যতম। তিনি বলেন, বর্তমানে রাজ্যে গণতন্ত্র নেই। এই অবস্থায় জনশিক্ষা আন্দোলনের নেতৃত্বদের প্রতিকৃতিতে শুধু ফুলমালা দিলেই তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হবে না। এখনও যারা দূরে রয়েছে তাদেরকে সংগঠিত করে লড়াই এর মধ্য দিয়ে রাজ্যে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে পাড়লেই তাদের প্রতি জানানো হবে প্রকৃত শ্রদ্ধা।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five + 15 =

Back to top button