ত্রিপুরা

সরকারি শিকক্ষরা বিদ্যালয় পরিদর্শকের নাকের ডগায় অবৈধভাবে টিউশন চালিয়ে যাচ্ছে।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক,বক্সনগর প্রতিনিধি : সরকারি শিকক্ষরা করতে পারবে না প্রাইভেট টিউশন কিন্তু সোনামুড়ায় অনেক সরকারি শিক্ষকরা আছে যারা প্রাইভেট টিউশন করে। গত ৩০ শে নভেম্বর সোনামুড়া মহকুমার শাসকের অভিযানে সত্যতা প্রকাশ আসে ৪ শিক্ষকের নাম যার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত, কিন্তু এই অভিযানে ফলে বিপাকে পড়েছেন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক ফাইনাল পরীক্ষার ছাত্রছাত্রী কারণ তারা অনেকেই এই শিক্ষকের কাছে টিউশন নিতেন। তাই আজ ছাত্র ছাত্রীদের এক প্রতিনিধি দল সোনামুড়া মহকুমার শাসকের নিকট ডেপুটেশন প্রদান করেন। মহকুমার শাসকের কাছে বলা হয় তারা যদি এই অবস্থায় টিউশন না করতে পারে তাহলে তাদের শিক্ষার ক্ষতি হয়ে যাবে, কিন্তু মহাকুমা শাসকরা অভিযানের পর এই খবর সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ করায় তার সংবাদ মাধ্যমকে বিভিন্ন ভাষায় গালি গালাজ করে এমন কি কল করে সাংবাদিক কে ভিডিও ডিলিট করার জন্য হুমকি দেয়। একের পর এক সাংবাদিক আক্রান্ত হয়েছেন। এবার আবার প্রতিবাদী কলম ও PB 24 এর সাংবাদিক মামন মিয়াকে ফোন করে ধমকি দেয়। তবে সচেতন মহলের অভিযোগ যে শিক্ষকরা অবৈধ ভাবে প্রাইভেট টিউশন চালিয়ে গেছে তাদের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে প্রশাসন, নির্দিষ্ট কর্মস্থানে না গিয়ে অনেক দিন ধরে বিদ্যালয় পরিদর্শকে নাকের ডগায় অবৈধভাবে টিউশন চালিয়ে গেছে, যেখানে করুনা মহামারির জন্য স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে স্কুল খোলার অনুমতি দেয়নি সেখানে সামাজিক দূরত্ব এবং কভিড নির্দেশিকা না মেনেই প্রাইভেট টিউশন চালিয়ে যাচ্ছে শিক্ষকরা।কিন্তু একটা প্রশ্ন থেকেই যায় কার পরোচনায় ছাএছাএীর রাস্তায় নেমে আন্দোলন করেছে। তাদের পেছন দিক থেকে কে সাহায্য করছে?

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 + 6 =

Back to top button