ত্রিপুরা

বনধ সর্বাত্মকভাবে সফল হয়েছে : মানিক সরকার।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক,ত্রিপুরা : কেন্দ্রের শ্রমিক কৃষক ও জনস্বার্থবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে ২৬শে নভেম্বর ২০২০ দেশব্যাপী ২৪ ঘণ্টার সাধারণ ধর্মঘট পালন করার যে ডাক দিয়েছেন সিপিআইএম দল এবং সিআইটিইউ সংগঠন সে বনধ সর্বাত্মকভাবে সফল হয়েছে বলে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান বিরোধী দলনেতা মানিক সরকার।তিনি আরো বলেন যে, শাসক দল বিজেপি মানুষদের ভয়ভীতি দেখিয়ে জোর করিয়ে দোকানপাট,বিভিন্ন বাজার খুলিয়েছেন। কিন্তু পরবর্তী সময়ে সেই সব মানুষরা ও আবার দোকানপাট বন্ধ করে বাড়ি চলে গিয়েছেন। এর থেকে স্পষ্ট শাসক দল বিজেপি ও গতকাল এই বনধকে নৈতিকভাবে সমর্থন করছেন। কিছু কিছু জায়গায় দুষ্কৃতীরা এবং সিপিআইএম এর বিভিন্ন দলীয় কার্যালয়ে আক্রমণ চালিয়েছে বলে বিরোধী দলনেতা মানিক সরকার সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন। অন্যদিকে আগরতলা কৃষ্ণনগরস্থিত ত্রিপুরা প্রদেশ বিজেপি কার্যালয়ে ২৬শে নভেম্বর ২০২০ সারা দেশব্যাপী সিপিআইএম দল ২৪ ঘন্টার যে বনধ ডেকেছিল ত্রিপুরা মানুষ সে বনধকে প্রত্যাখ্যান করেছেন সে বিষয় নিয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলনে মিলিত বিজেপি বিধায়ক রতন চক্রবর্তী, ত্রিপুরা প্রদেশ বিজিপি সহ-সভাপতি রাজিব ভট্টাচার্যী ত্রিপুরা প্রদেশ বিজেপি দলের অন্যান্য কার্যকর্তাগন। এদিন বিধায়ক রতন চক্রবর্তী বলেন যে, সাধারণত বনধ ডাকলেই কোন না কোনভাবে যারা বনধ ডাকে তাদের শক্তি যতই কম আর বেশী থাকুক না কেন জনগণের মধ্যে একটা ধূলাচলুতা, সংশয় এই সমস্ত কারণে সাধারণভাবে অভিজ্ঞতাই দেখেছেন বনধগুলো বিভিন্ন ভাবে সফল হয়ে যায়। গতকাল যে বনধ ডেকেছিল সিপিআইএম দল সে বনধ মানুষ প্রত্যাখ্যান করেছে সে বনধ জনতা মানেনি বনধের কয়েকদিন আগে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা বিরোধী দলনেতা মানিক সরকার একটা বক্তৃতায় বলেছিলেন,এবার ঐতিহাসিক বনধ হবে। মানুষের স্বতঃস্ফূর্ততাই এবং সমর্থনে এই ত্রিপুরা রাজ্যে একটা নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে উনার কথাটা একদমই সঠিক এই অর্থে যে নতুন ইতিহাস তৈরি হয়েছে যে ইতিহাসের কথা সিপিআইএম এর লোকেরা বা যারা বনধ ডেকেছেন সিট্যু থেকে শুরু করে আসলে তো সিপিআইএম এই বনধের মেইন ছিল এই বনধ সম্পূর্ণভাবে ব্যর্থ হয়েছে গোটা ত্রিপুরা রাজ্যে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eight − 5 =

Back to top button