ত্রিপুরা

বাঙালি মানেই ভোজন রসিক, আর এই ভোজনরসিক বাঙালির পাতে মাছ মাংস থাকবে না তা কি করে হয়।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক,তেলিয়ামুড়া প্রতিনিধি:- বাঙালি মানেই ভোজন রসিক, আর এই ভোজনরসিক বাঙালির পাতে মাছ মাংস থাকবে না তা কি করে হয়। বছরে একটি দিন শুভ বিজয়া। এই দিনে ধনী-দরিদ্র যে যার সাধ্যমতো অর্থকরী নিয়ে বাজারমুখী হয় কিছু ভালো মন্দ ক্রয় করার জন্য। কিন্তু অন্যান্য বছরের তুলনায় এবং করুণা অতি মারির কারণে মাছ এবং মাংস বাজারেও বিক্রির মন্দাভাব। সোমবার তেলিয়ামুড়া কৃষি নিয়ন্ত্রিত মাছ ও মাংস বাজারে গিয়ে প্রত্যক্ষ করা গেল একই চিত্র। এদিন বাজারে পাঁঠার মাংস ১২০০টাকা, দেশী মোরগ ৫০০টাকা, বয়লার মোরগ ২৪০টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে। অন্যদিকে মাছ বাজারে গিয়ে জানা গেল ইলিশ মাছ ১২০০/১৫০০, কাতল মাছ ৫০০টাকা সহ অন্যান্য মাছের মূল্য অগ্নিশর্মা। যা অগ্নিমূল্যের বাজারে ক্রেতা সাধারণের হাত পুড়ছে। আবার একই চিত্র প্রত্যক্ষ করা গেল মিঠাই মন্ডা দোকান গুলোতেও। মিষ্টির দোকানগুলোতে দোকানিরা বিভিন্ন ধরনের মিষ্টি নিয়ে বসে থাকলেও ক্রেতা সাধারণের দেখা নেই। তবে একটা জিনিস প্রত্যক্ষ করা গেল, বর্তমান করোনা মহামারী কে হেলায় তুচ্ছ করে মানুষজন বাজারমুখী হয়েছে ঠিকই । তেলিয়ামুড়া বাজারগুলিতে নেই সামাজিক দূরত্ব। ক্রেতা-বিক্রেতা অনেকের মুখেই নেই মাক্স….. উদাসীন দপ্তর।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × 1 =

Back to top button