রাজ্য

বিবাহিত পুত্রবধূকে বাড়িতে ঢুকতে দিলনা শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক, উত্তর দিনাজপুর : বিবাহিত পুত্রবধূকে বাড়িতে ঢুকতে দিলনা শ্বশুরবাড়ির লোকজন। আর এরপরই শনিবার সন্ধ্যা থেকে সারারাত বাড়ির সামনের রাস্তায় দাঁড়িয়ে রইলেন ওই গৃহবধূ। শুধু তাই নয়, রবিবার স্বীকৃতির দাবিতে শ্বশুর বাড়ির সামনে ধর্নায়ও বসলেন সেই গৃহবধূ। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। ইসলামপুর থানার শ্রীকৃষ্ণপুর সংলগ্ন খোখো বস্তির ঘটনা। অভিযোগ, এক বছরেরও বেশি সময় আগে তসিব আলম নামে খোখো বস্তি এলাকার এক যুবকের সঙ্গে কলতাহার এলাকার মিনারা খাতুন নামে ওই মহিলার আইনিভাবে বিবাহ সম্পন্ন হলেও তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন এই বিয়ে মেনে নিতে নারাজ ।আর এই জন্যই এই ঘটনা। যদিও তসিব আলমের বাবা টুনাই মহম্মদ জানিয়েছেন, ছেলেকে জোর করে ধরে নিয়ে গিয়ে ওই মেয়ের সঙ্গে বিয়ে দিয়ে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু বর্তমানে তার ছেলের ভরণপোষণ এর দায়িত্ব তিনি নিতে পারবেন না। যারা এই বিয়ে করিয়েছে তারাই সেটা বুঝে নিক এবং তিনি এই বিয়ে সম্পর্কে কিছুই জানেন না। তবে আগে আগাম খবর পেলে দুই পক্ষকে নিয়ে বসে একটা সমস্যার সমাধান হতো বলে তিনি মনে করছেন। অন্যদিকে মিনারা বেগম নামে ওই গৃহবধূ জানান, শনিবার সে তার শ্বশুরবাড়িতে স্বামীর কথা অনুযায়ী ঢুকতে গেলে তাকে বাধা দেওয়া হয় এবং ধাক্কা দিয়ে বের করে দেয় শ্বশুর বাড়ির লোকজন। আর তাই তিনি সারারাত বাড়ির বাইরে কাটিয়ে দেন। আর এর পরেই নিজের অধিকার তথা স্বীকৃতির দাবিতে ধর্নায় বসেন তিনি। এই ঘটনা দেখতে জড়ো হয়েছেন প্রচুর কৌতুহলী মানুষ। এদিকে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে রামগঞ্জ দুই গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য জাহিদ আলম বলেন, এই বিষয়টিকে নিয়ে তারা একটি সালিশি বৈঠকে বসেছিলেন। কিন্তু ছেলের বাবা তাদের সিদ্ধান্তে রাজি হননি বলেই শেষ পর্যন্ত তারা আইনের দ্বারস্থ হয়েছেন।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fifteen − eight =

Back to top button