রাজ্য

পুলিশ কোথা থেকে টাকা তুলে কাকে পৌঁছে দেয় মানুষ সব জানে : শুভেন্দু অধিকারী।

নিউস বেঙ্গল 365, নিউসডেস্ক:  রবিবার দুপুর থেকে জনজোয়ারে ভাঁসলো দাঁতন। বিজেপির মিছিলে অবরুদ্ধ হলো শহর। বিকালের জনসভায় তিল ধারণের জায়গা ছিল না। আর সেই জনসমুদ্রের মাঝে দাঁড়িয়ে জননেতা শুভেন্দু অধিকারী একের পর এক তীর চালালেন তৃণমূলের বিরুদ্ধে। কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন অভিষেক ব্যানার্জীকে। তিনি বলেন, ‘দক্ষিণ কলকাতার চার পাঁচজন লোক মিলে কোম্পানি চালাচ্ছেন। রাজ্য মন্ত্রিসভার আঠারোটা মন্ত্রী কলকাতার। আমরা কি বানের জালে ভেসে এসেছি?’ শুভেন্দু নিজেকে বাংলার একজন সচেতন নাগরিক হিসাবে সম্মোধন করে বলেন, ‘কলকাতা ও দিল্লিতে একই দলের সরকার হলে বাংলায় অনেক উন্নতি হবে।’ শুভেন্দু তৃণমূলকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘ছিন্নমূলের লোকেরা খালি চেঁচাচ্ছে। এখানে ইতিমধ্যেই বিজেপির জমি তৈরী। তুফান তৈরী হয়েছে, আমি সুনামি করতে এসেছি।’ অভিষেক ব্যানার্জীর নাম না করে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘গত লোকসভায় ডায়মন্ড হারবারে ভোট হয়নি। 30 % বুথে ভোট লুঠ হয়েছে। ভাইপোকে মাথায় রাখার জন্য আমাকে যুব সভাপতির পদ থেকে সরানো হয়েছিল।’ তিনি সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জীর প্রতি একরাশ ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেন, ‘বালি খাদান, কয়লা খাদান, পাথর খাদানে গিয়ে জিজ্ঞাসা করুন কে তোলাবাজ, সবাই বলে দেবে।’ তিনি আরো বলেন, ‘মুর্শিদাবাদ, মালদহ, চব্বিশ পরগনার বর্ডারে গিয়ে খোঁজ নিলেই জানতে পারবেন পুলিশ কোথা থেকে টাকা তুলে কার কাছে পৌঁছে দেয়।’ পরিশেষে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘কলকাতা ও হাওড়ার  সাথে কথা বলবো। আমরা সবাই মিলে মোদীজির হাতে বাংলাকে তুলে দেব। বাংলায় এবার পদ্ম ফুটবেই।’

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty + 18 =

Back to top button