রাজ্য

ববির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দলত্যাগ করলেন জিতেন্দ্র তেওয়ারি।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক : ফের বোমা ফাটালেন জিতেন্দ্র তেওয়ারি। উত্তরবঙ্গ থেকে খোদ মুখ্যমন্ত্রী তথা দলনেত্রী  নিজে তাকে ফোন করলেও আখেরে যে তাতে খুব একটা লাভ হয়নি বৃহস্পতিবার তা বুঝিয়ে দিলেন তিনি। ববির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে আসানসোলের পুর প্রশাসকের পদ ছাড়লেন জিতেন্দ্র তেওয়ারি। বৃহস্পতিবার ফের দলকে  আক্রমণ করেন তিনি। বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পক্ষে সব কিছু দেখা সম্ভব নয়, দলে কিছু চামচা-বেলচা আছে, তারাই দলটাকে শেষ করে দিচ্ছে। নষ্ট করে দিচ্ছে। “রাজ্য সরকারের “রাজনীতিক বিবাদের ” ফলে কেন্দ্রের প্রায় ৩৫০০ কোটি টাকা আসানসোল পুরনিগম পায়নি বলে অভিযোগ তুলে দলকে অস্বস্তিতে ফেলেন তিনি। এমনকী পুরমন্ত্রীকে দেওয়া একটি গোপন চিঠি কিভাবে ফাস হয়ে যায? তা নিয়েও  ক্ষোভ উগরে দেন তিনি। এমনকী প্রকাশ্যেই ফিরহাদ হাকিম ‘ইমরান খানের পরামর্শে’ চলছেন’ বলে কটাক্ষ করেন তিনি।  ২১ এর বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল আদৌ ক্ষমতায় আসবে কী না, তা নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করেছেন পান্ডবেশ্বরের বিধায়ক। এদিন  জিতেন্দ্র তেওয়ারি বলেন, ” দলে সামান্য একটা-দুটো বদল আনলেই আমরা সহজে জিততাম। এই চামচা-বেলচারা সেটাও করতে দিচ্ছে না। দল রাখলে আমি তৃণমূলেই আছি।” তিনি প্রকাশ্যে  শুভেন্দু অধিকারীকে ঢালাও সমর্থন করেছেন। এমনকি তার সঙ্গে বৈঠকও করেছেন জিতেন্দ্র তেওয়ারি। যা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। এদিনও  শুভেন্দু’র পাশেই দাড়িয়ে তিনি বলেন,” মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পর সব থেকে জনপ্রিয় নেতার নাম শুভেন্দু অধিকারী। শুভেন্দুদাকে একটু সম্মান দিয়ে , একটু আলোচনা করেই সমস্যা মিটিয়ে নেওয়া য়েত।” এদিন খানিকটা শুভেন্দুর সুরেই সুর মিলিয়ে তিনি বলেন, ” উনাকে অপমান করতেই যুবা তৈরী করা হল, অবসারভার পদ তুলে দেওয়া হল, আসলে কোনওভাবেই শুভেন্দুদাকে আটকে রাখা যাচ্চিল না। যে জেলায় দায়িত্ব নিয়েছেন সফল হয়েছেন, এটাই কারোর কারোর সমস্যা হয়েছে। তাই এই অব্স্থা।” তবে এতকিছুর পরও তিনি যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর আস্থা আছে বুঝিয়ে দেন তাও। তার পদত্যাগের পরই পাণ্ডবেশ্বরের তাঁর পার্টি অফিস ভাংচুর হয় বলে অভিযোগ। এই খবর পাওয়ার পর জিতেন্দ্র তিওয়ারি তৃণমূলের সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ত্যাগ করলেন বলে জানালেন। 

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 − 4 =

Back to top button