রাজ্য

চোর আর কয়লা মাফিয়ার নাম অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় : সৌমিত্র খান।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক : রবিবার ডায়মন্ডহারবারের সভা থেকে “ভাইপো”র বদলে সাহস থাকলে সরাসরি তার নাম ধরে আক্রমণ করার চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। আর ঠিক তার দুদিন পরেই কার্যত তার সেই চ্যালেঞ্জ “বুমেরাং” হয়ে ফিরে এল তার কাছেই। মঙ্গলবার সরাসরি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম ধরে আক্রমণ শানালেন বিজেপি সাংসদ ও যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি সৌমিত্র খান। এদিন কোচবিহারে এক চা চক্রে অংশ নিয়ে সৌমিত্র খান বলেন, “আমি বলছি, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় একজন চোর। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় একজন ডাকাত। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় একজন কয়লা মাফিয়া।’ নির্বাচন এগিয়ে আসতেই রীতিমত বাকযুদ্ধে যুযুধান দুই পক্ষ। গতকালই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘খোকাবাবু’ বলে কটাক্ষ করেছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তবে মুখে নাম নেননি তিনি। কিন্তু মঙ্গলবার তা করে দেখালেন সৌমিত্র খান। গত রবিবার দক্ষিণ ২৪ পরগনায় এক জনসভায় বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে ‘গুন্ডা’ বলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে অভিষেককে সৌজন্যের পাঠ পড়িয়েছিলেন দিলীপবাবু। কিন্তু সৌমিত্র খানের বিস্ফোরক দাবি, ‘চাকরি দেওয়ার নাম করেও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় একাধিক জেলা থেকে প্রচুর অর্থ তুলেছেন’। তার বক্তব্য, “অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় চাকরি দেব বলে বিভিন্ন জেলার ছেলেদের কাছ থেকে টাকা তুলেছেন। এলাকায় এলাকায় সেই টাকা তোলা হয়েছে। আর এতে তার সঙ্গীর নাম বিনয় মিশ্র।” সৌমিত্র খান আরো বলেন, ‘অভিষেক বন্দোপাধ্যায়কে বলুন আমার বিরুদ্ধে কেস করতে’। পালটা সৌমিত্রবাবুর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়েরের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি।কোচবিহার জেলা যুব তৃণমূল সভাপতি বলেন, ‘সৌমিত্রবাবুর বিরুদ্ধে আমরা কোতয়ালি থানায় অভিযোগ দায়ের করবো।’

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

12 + 7 =

Back to top button