রাজ্য

শুভেন্দু নিজের অবস্থান স্পষ্ট না করলে দল পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে: অখিল গিরি

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক : তবে কী শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে কড়া অবস্থান নিতে চলেছে তৃণমূল? অন্তত সেই রকমই ইঙ্গিত দিলেন রামনগরের বিধায়ক অখিল গিরি।  কার্যত দলের লাইনের বাইরে গিয়েই ইতিমধ্যে একাধিক কর্মসূচী নিয়েছেন পরিবহণ মন্ত্রী। এমনকী কোন কর্মসূচীতেই ব্যবহার করেন নি দলের প্রতীক বা দলীয় পতাকা। থাকছে না নেত্রীর ছবিও। সব নিযে শুভেন্দুকে নিয়ে যথেষ্ট অস্বস্তিতে তৃণমূল। মুখে “ভারতমাতার জয়” স্লোগানও শোনা গিয়েছ, যা সাধারণত বিজেপির মিটিং-মিছিলে শোনা যায়।  আগামী ১৯ নভেম্বর রামনগরে আর একটি বড় মাপের জনসভা করতে চলেছেন রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। এই কথা তিনিই ঘোষণা করেছেন।  রাজনৈতিক মহলের মতে,  সেদিনই তার  রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ জানা যাবে। আর তার আগে কার্যত শুভেন্দুকে কড়া হুশিযারী দিলেন  রামনগরের তৃণমূল বিধায়ক অখিল গিরি। সরাসরি শুভেন্দু অধিকারীকে আলটিমেটাম দিয়ে তিনি বলেন, ‘তৃণমূলের পক্ষ থেকে শুভেন্দু অধিকারীকে সাত দিনের আল্টিমেটাম (চরম হুঁশিয়ারি) দেওয়া হয়েছে। উনি নিজের অবস্থান স্পষ্ট না করলে দল পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে।’‌ আচমকাই ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোর শুভেন্দু অধিকারীর বাড়ি যান। তবে তিনি না থাকলেও পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সভাপতি শিশির অধিকারীর সঙ্গে মিটিং করেন পিকে। রাজনৈতিক মহলের মতে, বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যাওয়ার সময  তৃণমূলের পক্ষ থেকে শুভেন্দুকে সতর্কবার্তা পাঠানো হয়। যা শিশির অধিকারীকে জানিয়েও দেন প্রশান্ত কিশোর। যদিও তা অস্বীকার করেছেন শিশির অধিকারী। কিন্তু এদিন  তা প্রকাশ্যে নিয়ে এলেন অখিল গিরি। অখিল বলেছেন, ‘কেউ দলের ঊর্ধ্বে নয়। শুভেন্দু ওইদিন সভা করবেন বলে শুনছি। স্থানীয় বিধায়ক হিসেবে সেই সভার আয়োজকদের বলেছিলাম, মঞ্চে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি লাগাতে। কিন্তু তাঁরা জানিয়েছেন, মঞ্চে মমতার লাগানো হবে না।’‌ তবে এদিন অখিল গিরির কথায় স্পষ্ট, এবার কড়া ব্যবস্থা নেবে তৃণমূল।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button