রাজ্য

নন্দীগ্রামে দাড়িয়ে শুভেন্দুকে নাম না করে মীরজাফর বলে কটাক্ষ ফিরহাদ হাকিমের।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক : “উত্থান” এর মাটিতেই সেয়ানে-সেয়ানে লড়াই দেখল নন্দীগ্রাম। মঙ্গলের সকালে তেখালিতে দাড়িয়ে নাম না করে তৃণমূলকে তীব্র কটাক্ষ করতে শোনা যায় রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী ও নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু আধিকারীকে। আর তারই পাল্টা হাজরাকাটায় শহীদ দিবসের মঞ্চ থেকে নাম না করে সেই শুভেন্দুকেই ” মীরজাফর” বলে জবাব দিলেন রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। সকালে ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটির মিটিং এ কার্যত জনজোয়ারে পরিণত হয়। তবে হাজরাকাটায় সেই পরিমান ভীড় না হলেও, পাল্টা সভা থেকে ঝাঝ বাড়িয়ে আক্রমণে গেলেন ফিরহাদ। বলেন,” মীরজাফর তখনও ছিল। আজও আছে। আমরা বিশ্বাস করেছি। তবে মীরজাফররা এখানেই আছে।” কারও নাম না করে এদিন সভামঞ্চ থেকে কটাক্ষ করলেন রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম ‘‌আজ ‘‌আমি আমি’‌ করে সেই দলটাকে সুবিধা করে দেওয়া হচ্ছে না?‌ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরোধীতা করা অর্থাৎ বিজেপি–র হাত শক্ত করা। বিজেপি ক্ষমতায় আসা মানে বাংলাকে উত্তরপ্রদেশ বানিয়ে দেওয়া।’  সম্প্রতি ‘‌দাদার অনুগামী’‌ ব্যানারে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় নজর কেড়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর একের পর বক্তব্যে বেড়েছে জল্পনা। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, মেদিনীপুর–সহ জঙ্গলমহলের রাশ নিজের হাতে রাখার চেষ্টা করছেন শুভেন্দু। কোনও সভায় আর তাঁর মুখে ‌মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বা তৃণমূলের নাম শোনা যায় না। এদিন শুভেন্দু অধিকারীর এই একচেটিয়া ক্ষমতা দখলের মনোভাবকে কটাক্ষ করে ফিরহাদ হাকিম বলেন, শুধু ‘‌আমি’‌ নয়, ‘‌আমরা’‌–কে নিয়ে চলতে হবে। ‌ঐক্যবদ্ধভাবে বাঁচতে হবে। তাঁর কথায়, ‘‌আমি বড়!‌ আমি আমি আমি!‌ আমিত্ব নয়। আমরা আমরা আমরা। আমরা সকলে মিলেই হবে শক্তি। একা একা থাকলে শক্তি আর থাকবে না। আমি আমি আমি— হয় না।’‌

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − seven =

Back to top button