রাজ্য

বিমলের সিদ্ধান্তকে স্বাগত হরকা বাহাদুরের, একই মত সুরজ শর্মার।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক: প্রায় ৩ বছর পাহাড় ছাড়া বিমল গুরুং। ২০১৭ সালের অক্টোবর মাস থেকে ফেরার ইউএপিএতে অভিযুক্ত গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সুপ্রিমো বিমল গুরুং। তবে বুধবার প্রায় ৩ বছর পর প্রকাশ্যে আসেন বিমল গুরুং-রোশন গিরিরা। তবে এদিন কার্যত বিজেপিকে তুলোধনা করে সরাসরি তৃণমূলের সঙ্গে জোটের বার্তা দেন বিমল গুরুং। যা আর কয়েক মাস পরে হতে চলা বিধানসভা নির্বাচনে জোড়াফুল শিবিরকে অন্তত পাহাড়ের ৩ টি আসনে বাড়তি অক্সিজেন দিল। রাজনৈতিক মহলের মতে, একদিকে দলের অন্যতম মুখ কালিম্পঙের প্রাক্তন  বিধাযক ড: হরকাবাহাদুর ছেত্রী দল ছেড়ে তৈরি করেছেন নতুন দল, অন্যদিকে একদা ডানহাত বিনয় তামাংরাও নেতা বদল করেছেন। সব মিলিয়ে ঘরে বাইরে কোন ঠাসা বিমল গুরুং। এবার তাই সেই মমতাকেই সমর্থনের ইঙ্গিত বিমল-রোশনদের। তবে এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন জন আন্দোলন পার্টির সভাপতি ড: হরকাবাহাদুর ছেত্রী। তার বক্তব্য,” সঠিক সিদ্ধান্ত। কেন্দ্রীয় সরকার তো কিছুই করেনি পাহাড়ের জন্য। আমি দলে থাকতে বলেছিলাম রাজ্যের সঙ্গে সংঘাত না করতে। বরং রাজ্যের যে উন্নয়নের প্রকল্প তা নিয়ে পাহাড়ের উন্নযন করতে।”অপরদিকে বিনয় পন্থী মোর্চার কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুরজ শর্মার বক্তব্য,”দেরিতে হলেও শুভবুদ্ধি হয়েছে। বিজেপি যে আমাদের সঙ্গে প্রতারণা করছে সেটা  উনি ৩ বছর পরে বুঝতে পারলেন। তবে দেরীতে হলেও যে বুঝেছেন সেটাই অনেক।”

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 + 16 =

Back to top button