রাজ্য

“দাদা”র মঙ্গলকামনায় বিশাল যজ্ঞ শুভেন্দু অনুগামীদের।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক : এরা সবাই তৃণমূল কর্মী। একসময়ে যখন শুভেন্দু অধিকারী জেলা পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব সামলেছেন এরা সবাই সেই সময় কাছাকাছি আসেন পরিবহন মন্ত্রীর। তবে খুব সম্প্রতি সাংগাঠনিক দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার পর থেকে কার্যত দলের থেকে অনেকটাই “বিচ্ছিন্ন” শুভেন্দু অধিকারী। এমনকী, পূর্ব মেদিনীপুরের “যুবরাজ” আদৌ তৃণমূল শিবিরে থাকবেন কী না, তা নিয়ে ইতিমধ্যে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। ইতিমধ্যে গোটা রাজ্যজুড়ে নিজের অনুগামীদের সংগঠিত করতেও শুরু করেছেন বলে সূত্রের খবর। এমনকী গোটা রাজ্যে এরই নধ্যে ” শুভেন্দু অধিকারীর অনুগামী” বা ” আমরা দাদার অনুগামী” র মতো একাধিক হোয়াটস আপ বা ফেসবুক গ্রুপ তৈরি হয়েছে। এরইমধ্যে করোনা আক্রান্ত রাজ্যের এই প্রভাবশালী মন্ত্রী। রবিবার সেই শুভেন্দুপন্থী তৃণমূল কর্মীরা মন্ত্রীর সুস্থতার জন্য পুজো দিলেন।

বাঁকুড়ার ভৈরবস্থানে এদিন রীতিমত যজ্ঞ দিলেন তারা। বুকে “আমরা দাদার অনুগামী” ফ্লেক্স লাগিয়ে এদিন পুজো দেন তারা। ফ্লেক্স এ শুভেন্দু অধিকারীর ছবি লাগানো থাকলেও, না কোথাও তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্পাধ্যায়ের নাম বা ছবি দেখা গেল না। এমনকী একবার নেত্রীর নামও মুখে আনেননি এই তৃনূমুল কর্মীরা। গোটা বিষয় নিয়ে বাঁকুড়া শহরের তৃনমূল নেতা সৌরভ সাহা’র বক্তব্য, ” দেখুন আমরা দাদা (শুভেন্দু অধিকারী) কেই নেতা বলে মানি। উনিই আমাদের আদর্শ। তাই আমরা দাদার অনুগামী বলেই নিজেদের গর্ব বোধ করি।” কিন্তু সাধারণত: তৃণমূলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যাযের ছবি ব্যবহার করাটাই দস্তুর। সেখানে দাড়িয়ে শুধুমাত্র শুভেন্দুর ছবি? সৌরভের বক্তব্য,” “আমাদের কাছে দাদা’ই সব। তাই দিদি থাকলেও দাদা আমাদের হৃদয়ে, তাই দাদার জন্য এই যজ্ঞ। দাদা যে পথে যাবে সেটাই আমাদের পথ।”

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button