রাজ্য

চোর ও কাটমানির দল হল তৃণমূল কংগ্রেস: সায়ন্তন বসু

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক, নদিয়া:- উত্তর ২৪ পরগনার বারাকপুরে আজ গান্ধী স্মৃতি স্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করার পরে সাংবাদিকদের জগদীপ ধনখড় জানান রাজভবনের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি করা হয়েছে। এ রাজ্যে সরকারি আধিকারিকরা রাজনৈতিক দলের হয়ে কাজ করছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন। এরপরই,  রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু রাজ্যপালের মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছেন। তিনি জগদীপ ধনখড়কে ‘নৈ-রাজ্যপাল’ বলে কটাক্ষ করেন তিনি। এই প্রসঙ্গে নদিয়ার মদনপুরে কৃষক বিল সমর্থনে একটি অনুষ্ঠানে এসে বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু বলেন, ” তৃণমূল দলের কোনো নৈরাজ্য নেই। তাই ব্রাত্যবাবুরা রাজ্যপালের নামে এই ধরণের মন্তব্য করেন। চোর ও কাটমানির দল হল তৃণমূল কংগ্রেস।” কংগ্রেসের পর তৃণমূল কংগ্রেস। হাথরসের ‘নির্ভয়া’র পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে শুক্রবার উত্তরপ্রদেশ পুলিশের প্রবল বাধার মুখে পড়ল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল। পুলিশ হাথরসের সীমানায় বাধা দেয় তৃণমূল প্রতিনিধি দলকে। চলে বচসা, ধস্তাধস্তি। ধাক্কা মেরে মাটিতে ফেলে দেওয়া হল তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েনকে। এই বিষয়ে সায়ন্তনবাবু বলেন, “উত্তরপ্রদেশে তৃণমূল দল রয়েছে নাকি? ওখানে যাওয়ার দরকার কি ছিল তৃণমূলের?” প্রশ্ন তোলেন বিজেপি নেতা। পাশাপাশি সায়ন্তনবাবু কৃষকমান্ডি প্রসঙ্গে বলেন,” কৃষকমান্ডি কৃষকদের জন্য করা হয়নি। তৃণমূলের সিন্ডিকেট ব্যবসা চালানোর জন্যই তৈরি এই কৃষকমান্ডি।” তিনি এও বলেন, ” কৃষি বিলের ফলে উপকৃত হবেন কৃষকরা। এর ফলে কৃষক মৃত্যুর হার কমবে বলে দাবি সায়ন্তনবাবুর।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button