রাজ্য

তৃনমুলের নেতাকে ফাঁসানোর অভিযোগ দলীয় বিধায়কের বিরুদ্ধে ।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক , মালদা:- বিতর্ক যেন ঘাড়ে চেপে বসেছে। এবার ফের প্রকাশ্যে এলো তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠীকোন্দল। এবার মালদার রতুয়া বিধায়কের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় দলেরই এক নেতাকে ফাঁসানোর অভিযোগ। দলের বিধায়কের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে তৃণমূল নেতা মোহাম্মদ ইয়াসিন বিষয়টি নিয়ে সোচ্চার হয়েছেন। প্রমাণস্বরূপ তিনি বিধায়কের এরকম বেফাঁস মন্তব্য নিজের মোবাইলে ভয়েস রেকর্ডিং করে রেখেছেন। পাশাপাশি যে মহিলার মাধ্যমে তৃণমূল নেতা ইয়াসিনকে ফাঁসানোর অভিযোগ উঠেছে, ঘটনাচক্রে ওই মহিলাও বিধায়কের বিরুদ্ধে এহেন দ্বিচারিতার এবং চক্রান্তের কথা বলে প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছেন।পুরো ঘটনাটি নিয়ে তৃণমূল নেতা মহম্মদ ইয়াসিন রতুয়া ১ ব্লকের বাহারাল এলাকার দলীয় কার্যালয়ে একটি সাংবাদিক বৈঠক করেন।সেখানে দলের বিধায়কের বিরুদ্ধে তাঁকে ফাঁসানোর যে পরিকল্পনা এবং ষড়যন্ত্র করা হয়েছে তা প্রমাণ স্বরূপ কিছু নথিও সাংবাদিক বৈঠকে তুলে ধরেন।পাশাপাশি এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে তার বিরুদ্ধে যে চক্রান্তের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে সে ব্যাপারেও পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া , জেলাশাসক রাজর্ষি মিত্র এবং দলের জেলা সভাপতি তথা সাংসদ মৌসম নূরের কাছেও সরাসরি অভিযোগ জানিয়েছেন।এদিকে বিধায়কের বিরুদ্ধে পরিকল্পনা করে দলের তৃণমূল নেতাকে গুলি করে মারার বিষয়টি নিয়ে জেলার রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক শোরগোল পড়ে গিয়েছে। শাসকদলের বিধায়কের বিরুদ্ধে সরাসরি মুখ খুলেছেন তৃণমূল নেতা মহাম্মদ ইয়াসিন।এদিন সাংবাদিক বৈঠকে তৃণমূল নেতা মহম্মদ ইয়াসিন বলেন,  তার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় জেলে পুরে গুলি করে খুন করার পরিকল্পনা করেছে স্থানীয় বিধায়ক সমর মুখার্জি। এমনকি তার বিরুদ্ধে এলাকার এক মহিলাকে নানান প্রলোভন এবং হুমকি দেখিয়ে ধর্ষণের মিথ্যা মামলা দায়ের করার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।সম্প্রতি এই ঘটনার বিষয়ে তার কাছে একটি বিধায়কের ষড়যন্ত্রমূলক কথোপকথনের রেকর্ডিং মোবাইলে আছে। এছাড়াও যে মহিলাকে মিথ্যাভাবে মামলা করার জন্য প্ররোচিত করা হয়েছিল, সেই মহিলাও পুরো ঘটনার বিষয়টি জানিয়ে তার দ্বারস্থ হন। এরপরই সমস্ত ঘটনার ব্যাপারে দলের জেলা এবং রাজ্য নেতৃত্বকে জানিয়েছেন তিনি। এই প্রসঙ্গে বিধায়ক সমর মুখার্জির সাথে ফোন মারফত যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ” এই ধরণের অভিযোগ সর্বৈব মিথ্যা | আমি কোথাও এরকম কিছু বলিনি। সেক্ষত্রে ফোন রেকর্ডিংটি ও মিথ্যে | কোনো মহিলাকেও আমি এরকম বলিনি।এগুলো ভিত্তিহীন। বিষয়টি সাংবাদিকরাই খতিয়ে দেখুক।SHOW LESS

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button