রাজ্য

নন্দীগ্রাম বিধানসভা এলাকায় আশি থেকে একশো বুথে তৃণমূল কংগ্রেস এজেন্ট দিতে পারেনি : দেবশ্রী চৌধুরী।

নিজস্ব প্রতিনিধি উঃ দিনাজপুর : মুখ্যমন্ত্রীর হাইভোল্টেজ নন্দীগ্রাম বিধানসভা এলাকায় আশি থেকে একশো বুথে তৃণমূল কংগ্রেস এজেন্ট দিতে পারেনি। তা প্রমাণ করছে যে বিজেপি দুইশোর থেকে অনেক বেশি আসন পাবে। বৃহস্পতিবার রায়গঞ্জের সাংসদ ও কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু কল্যাণ দপ্তরের প্রতি মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরী ইসলামপুরে বিজেপি প্রার্থীদের নমিনেশনের পর সাংবাদিকদের এমনই জানান। তিনি বলেন, নির্বাচনের প্রথম চরণে জঙ্গলমহলে যে তিরিশটি আসনে নির্বাচন হয়েছিল ওখানে তৃণমূল সাফ হয়ে গেছে। এমনকি আজকেও যে সব এলাকায় দ্বিতীয় দফায় ভোট চলছে সেসব এলাকায়ও তৃণমূল সাফ হয়ে গেছে। দেবশ্রী চৌধুরী আরো বলেন যে, ইসলামপুরের নমিনেশন উপলক্ষে মানুষের যে উৎসাহ ও উল্লাস রয়েছে; তা দেখে মনে হচ্ছে ইসলামপুরের চারটি বিধানসভায় এমনকি উত্তর দিনাজপুরের সব কয়টি বিধানসভায় জিতবে বিজেপি। ইসলামপুর মহাকুমার বিভিন্ন এলাকায় এতদিন মাইনোরিটিদেরকে ভয় দেখিয়ে রাখা হয়েছিল কিন্তু এখন জনসাধারণ বুঝে গিয়েছে যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে বিজেপি সবকা সাথ সবকা বিকাশ ও সবকা বিশ্বাস নীতিতে চলছে এবং কেন্দ্র সরকারের যে সব যোজনা চলছে তাতে সংখ্যালঘুরা উপকৃত হয়েছেন। তাই এইবার সবাই বিজেপিকে জেতাবেন। এতদিন কংগ্রেস, সিপিএম, তৃণমূল সব মাইনোরিটিকে ভোটব্যাঙ্ক বানিয়ে রেখেছিল। অন্যদিকে দাড়িভিট কাণ্ডে মৃত দুই ছাত্র মামলা প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বক্তব্য, যতক্ষণ সিবিআই তদন্তের জন্য অনুমতি রাজ্য সরকার দিচ্ছেন না ততক্ষণ সিবিআই তদন্ত করা যায় না। তাই তারা সরকারে আসলেই ওই ঘটনায় সিবিআই তদন্ত করা হবে। বিজেপি রাজেশ ও তাপসের পরিবারের সঙ্গে আছে। তারাও বিজেপির সঙ্গে আছে বলে দাবি করেন দেবশ্রী চৌধুরী। পাশাপাশি প্রার্থী নিয়ে যে ক্ষোভ বা বিক্ষোভ হয়েছিল সেটা নিয়ে কোনো প্রভাব পড়বে না বলেও দেবশ্রী চৌধুরী দাবি করেছেন। চোপড়ার একটি মহিলার ধর্ষণের চেষ্টায় মামলায় দেবশ্রী চৌধুরী বলেন, এই ধরনের ঘটনা রাজ্যজুড়ে হচ্ছে। তিনি দাবি করেন, এক মাস পর এই ধরনের ঘটনাগুলি বন্ধ হয়ে যাবে। তিনি আরো একমাস মহিলাদের সাবধান হয়ে থাকতে বললেন। সাংবাদিকদের একটি অন্য প্রশ্নের জবাবে বলেন, মুখ্যমন্ত্রী নিজের হার বুঝতে পেরেছেন। তাই ধমক দিচ্ছেন। বিজেপির বিরুদ্ধে ছাপ্পা ভোট করানোর মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগের জবাবে দেবশ্রী চৌধুরী বলেন, আমরা আগে থেকে বলে আসছি যে এক তারিখ থেকে মুখ্যমন্ত্রী নাটক করবেন। তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে নিশানা করে বলেন, যেসব জায়গায় মুখ্যমন্ত্রীর অসুবিধা হয় সেখানে তিনি ড্রামা তৈরি করেন। যাতে মানুষের নজর সেখানে পড়ে। অপরদিকে এই দিন নমিনেশন পর চাকুলিয়ার বিজেপি প্রার্থী শচীন প্রসাদ বলেন, একশো শতাংশ তিনি জিতবেন। তারপর এলাকায় মহিলা কলেজ নির্মাণ, কর্মসংস্থান এবং স্বাস্থ্য পরিকাঠামো উন্নত করার পাশাপাশি সার্বিক উন্নয়ন করবেন। গোয়ালপোখর এর বিজেপি প্রার্থী গোলাম সরোয়ার বলেন, তিনি জিতলে এলাকায় সব ধরনের দুর্নীতি বন্ধ করে দিবেন। তিনি দাবি করেন তিনি জিতবেনই। অপরদিকে ইসলামপুরের বিজেপি প্রার্থী ডাঃ সৌম্যরূপ মন্ডল জানান, যেভাবে মানুষের জনসমর্থন পাওয়া গিয়েছে ও তার নমিনেশনে ভীড় উপচে পড়েছে তা প্রমাণ করছে তিনি বিপুল ভোটে জয়ী হবেন। চোপড়ার বিজেপি প্রার্থী শাহিন আক্তার বলেন, তৃণমূলকে হারিয়ে চোপড়া এলাকায় শান্তি প্রতিষ্ঠিত করবেন। এদিন বিজেপির সব প্রার্থী কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরীর নেতৃত্বে একটি বিশাল শোভাযাত্রার মাধ্যমে ইসলামপুরের জাতীয় সড়ক পরিক্রমা করে ইসলামপুরের পার্ক মোড় পর্যন্ত পৌঁছায়। এদিনের নমিনেশনকে কেন্দ্র করে গোটা ইসলামপুর শহরে জুড়ে বিজেপির কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক উম্মাদনা দেখা দেয়। নমিনেশন সেন্টারের একশো মিটারের মধ্যে একশো চুয়াল্লিশ ধারা জারি থাকায় বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা পার্ক মোড়ে ভিড় জমায়।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × 1 =

Back to top button