অন্যান্য

-: অমৃতকথা :-

বাংলা দিনপঞ্জী :সুপ্রভাত, আজ ৬ই পৌষ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (১৮৫ রামকৃষ্ণাব্দ) মঙ্গলবার (ইং : ২২শে ডিসেম্বর ২০২০) ।তিথি : আজ চান্দ্র অগ্রহায়ণ (মার্গশীর্ষ) শুক্লা অষ্টমী দিবা ৮।৪ পর্যন্ত ।* আজ শ্রীনিবাস রামানুজমের জন্মদিন (জন্ম : ২২শে ডিসেম্বর ১৮৮৭) । * আজ জাতীয় গনিত দিবস ।                 

-: অমৃতকথা :-  “নিরাশ হইও না । ভগবান গীতায় বলিতেছেন, ‘কর্মে তোমার অধিকার, ফলে নয়’ । কোমর বাঁধ, বৎস, প্রভু আমাকে এই কাজের জন্য ডাকিয়াছেন । সারাজীবন আমার দুঃখযন্ত্রণার মধ্যেই কাটিয়াছে । আমার প্রাণপ্রিয় আত্মীয়গণকে একরূপ অনাহারে মরিতে দেখিয়াছি । লোকে আমাকে উপহাস ও অবজ্ঞা করিয়াছে, জুয়াচোর বদমাস বলিয়াছে । আমি এ সমস্তই সহ্য করিয়াছি তাহাদেরই জন্য, যাহারা আমাকে উপহাস বা ঘৃণা করিয়াছে । বৎস ! এই জগৎ দুঃখের আগার বটে, কিন্তু ইহা মহাপুরুষগণের শিক্ষালয়স্বরূপ । এই দুঃখ হইতে সহানুভূতি, সহিষ্ণুতা, সর্বোপরি অদম্য দৃঢ় ইচ্ছাশক্তির বিকাশ হয়, যে শক্তিবলে মানুষ সমগ্র জগৎ চূর্ণবিচূর্ণ হইয়া গেলেও একটুও কম্পিত হয় না । যাহারা আমাকে ভণ্ড বিবেচনা করে, তাহাদের জন্য আমার দুঃখ হয় । তাহাদের কিছু দোষ নাই । তাহারা শিশু, অতি শিশু, যদিও সমাজে তাহারা মহা গণ্যমান্য বলিয়া বিবেচিত । তাহাদের চক্ষু নিজেদের ক্ষুদ্র দৃষ্টিসীমার বাহিরে আর কিছু দেখিতে পায় না । তাহাদের নিয়মিত কার্য – আহার, পান, অর্থোপার্জন ও বংশবৃদ্ধি – যেন তাহারা গনিতের নিয়মে অতি সুশৃঙ্খলভাবে পর পর সম্পাদিত হইয়া চলিয়াছে । ইহার অতিরিক্ত আর কিছু তাহারা জানে না । বেশ সুখী তাহারা । তাহাদের ঘুমের ব্যাঘাত কিছুতেই হয় না । শতশত শতাব্দীর পাশব অত্যাচারের ফলে সমুত্থিত শোক, তাপ, দৈন্য ও পাপের যে কাতর ধ্বনিতে ভারতাকাশ সমাকুল হইয়াছে, তাহাতেও তাহাদের জীবন সম্বন্ধে দিবাস্বপ্নের ব্যাঘাত হয় না । সেই শত শত যুগব্যাপী মানসিক, নৈতিক ও দৈহিক অত্যাচারের কথা যাহাতে ভগবানের প্রতিমাস্বরূপ মানুষকে ভারবাহী গর্দভে এবং ভগবতীর প্রতিমাস্বরূপ নারীকে সন্তান ধারণ করিবার দাসীস্বরূপা করিয়া ফেলিয়াছে এবং জীবন বিষময় করিয়া তুলিয়াছে, এ কথা তাহাদের স্বপ্নেও মনে উদিত হয় না । কিন্তু অন্যন্য অনেকেই আছেন, যাঁহারা দেখিতেছেন, প্রাণে প্রাণে বুঝিতেছেন, হৃদয়ের রক্তময় অশ্রু বিসর্জন করিতেছেন ; যাঁহারা মনে করেন, ইহার প্রতিকার আছে, আর প্রাণ পর্যন্ত পণ করিয়া যাঁহারা প্রতিকারে প্রস্তুত আছেন । ইঁহাদিগকে লইয়ায় স্বর্গরাজ্য বিরচিত । ইহা কি স্বাভাবিক নহে যে, উচ্চস্তরে অবস্থিত এইসকল মহাপুরুষের – ঐ বিষোদ্গিরণকারী ঘৃণ্য কীটগণের প্রলাপবাক্য শুনিবার মোটেই অবকাশ নাই ?” – স্বামী বিবেকানন্দ (গ্রন্থসূত্র : এসো মানুষ হও) ।
সঙ্কলক : চৌসিশ ।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 + fourteen =

Back to top button