কলকাতা

একটা ইতিহাসের সমাপ্তি হল: মুখ্যমন্ত্রী। গান সেল্যুটে শেষকৃত্য হবে সৌমিত্র চট্টপাধ্যায়ের।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক : অবসান হল একটা যুগের বিদায় নিলেন অপু। বা ফেলুদা। প্রায় ৪0 দিনের যুদ্ধ শেষে আজ দুপুর ১২: ১৫ মিনিটে “মৃত্যুর সঙ্গে তিনপাত্তি” খেলতে খেলতে বিদায় নিলেন সৌমিত্র চট্টপাধ্যায়। এদিন অভিনেতার মৃত্যু সংবাদ পাওয়ার পরই দুপুর ১ টা ২০ নাগাদ মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেনকে সঙ্গে নিয়ে বেলভিউ নার্সিংহোম ছুটে যান মুখ্যমন্তী মমতা বন্দ্পাধ্যায়। অভিনেতার কন্যা পৌলমী চট্টপাধ্যায়কে পাশে নিয়ে শোকস্তব্ধ মুখ্যমন্ত্রী বলেন,”একটা ইতিহাসের সমাপ্তি হল। আজ বাংলার খুব দু:খের দিন। বিশ্ববাংলার দু:খের দিন।” কোভিড আক্রান্ত সৌমিত্র চট্টপাধ্যায়ের সঙ্গে তার শেষবারের মতো হওয়া কথা মনে করিয়ে দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ” আমি তখন মেদিনীপুরে। উনি কোভিড আক্রান্ত। আমার সঙ্গে কথা হল। দেখলাম কী মনের জোড়। গলা শুনে শক্তিশালী মনে হয়েছিল।” এদিন অনেকটাই নস্টালজিক হয়ে পড়েন মুখ্যমন্ত্রী। সৌমিত্র কন্যাকে পাশে নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্পাধ্যায় বলেন,” উনি মানবিক আন্দলন, গণ আন্দলনের এক অসামান্য প্রতিনিধি ছিলেন।” এখানেই শেষ নয়, মমতা বন্দ্পাধ্যায় বলেন,” উনি যা দিয়েছেন, আমরা কেউ তার প্রতিদান দিতে পারবো না। সৌমিত্র দা যুগে যুগে এই বাংলাতেই আবার জন্মান।” আজ দুপুরে নার্সিংহোম থেকে দেহ নিয়ে যাওযা হয় গল্ফ গ্রিনের বাড়িতে। সেখান থেকে দেহ যাবে টেকনিশিয়ান স্টুডিওতে। সেখান থেকে রবীন্দ্র সদনে নিয়ে যাওয়া হবে। ৩:৩০-৫:৩০ পর্যন্ত দেহ থাকবে সেখানে। সেখান থেকে সামাজিক দুরত্ব মেনে মিছিল করে দেহ নিয়ে যাওয়া হবে কেওড়াতলা শ্বশানে নিয়ে গান সেল্যুটে শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে সৌমিত্র চট্টপাধ্যায়ের।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 5 =

Back to top button