কলকাতা

রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারির ইঙ্গিত দিলেন দিলীপ ঘোষ।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক: ফের রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন নিযে জল্পনা বাড়ালেন দিলীপ ঘোষ। এমনকী ইঙ্গিত দিলেন বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন জারির। উত্তরবঙ্গে কনভয় হামলার পর দিলীপ ঘোষের মন্তব্য যথেষ্ট গুরুত্ব পাচ্ছে রাজনৈতিক মহলে। বাংলায় কী রাষ্ট্রপতি শাসন হচ্ছে? এই প্রশ্নের উত্তরে বিজেপি রাজ্য সভাপতির বক্তব্য, ‘বিজেপি রাষ্ট্রপতি শাসনের পক্ষে নয়। গণতন্ত্রে ক্ষমতা বদল ভোটের মাধ্যমে হওয়া উচিত। সবাই যাতে শান্তিতে ভোট দিতে পারেন সেটি দেখতে হবে। বিজেপি কর্মী হিসেবে বলতে পারি আমি সংবিধানে বিশ্বাসী। নির্বাচিত সরকারকে ফেলে দেওয়ার পক্ষপাতী আমরা নই, যেটা অমিত শাহও বলে গিয়েছেন।’ তবে এর সঙ্গেই তিনি বলেন, ‘আমি বাংলায় ৩৫৬ চাই না, নীতিগত ভাবে সেটার পক্ষে নই আমরা। কিন্তু  রাজ্যের আইনশৃঙ্খলার পরিবেশ যে দিকে যাচ্ছে তাতে ভবিষ্যতে বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন জারির মতো পরিস্থিতি তৈরি হবে কিনা তা বলা সম্ভব নয়।’ পাশাপাশি  শুভেন্দু-তৃণমূল দ্বৈরথ নিয়েও আক্রমণ শানান তিনি। বলেন, “তৃণমূলে কোনও বিশ্বাসযোগ্য নেতা নেই। তাই শুভেন্দুর মান ভাঙাতে প্রশান্ত কিশোরকে পাঠানো হয়েছে।” তবে কি গেরুয়া শিবিরে যাচ্ছেন এই হেভিওয়েট নেতা? তার দাবী,” আমাদের  কোনও নেতার সঙ্গে শুভেন্দুবাবুর কোনও কথা হয়েছে বলে জানিনা। তবে শুভেন্দু অধিকারী বড় নেতা। তিনি নিজেই সিদ্ধান্ত নেবেন। আমাদের দলে এলে আমরা তাঁকে স্বাগত জানাবো।’ পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, “মিলিয়ে নিন ২১ এ পরিবর্তন হবেই। তৃণমূল চেষ্টা করেও আটকাতে পারবে না।” তার অভিযোগ, ‘রাজ্যে পায়ের তলায় মাটি সরে গিয়েছে তৃণমূলের। তাই কর্মীদের খুন করা হচ্ছে। এরমধ্যে ১২৭ জন কর্মীকে হত্যা করা হয়েছে বিজেপি করার অপরাধে।’

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 5 =

Back to top button