কলকাতা

মধ্যাহ্নভোজ সারবেন অমিত শাহ, পায়েসের নলেন গুড় জোগাড়ে হিমিশিম বাগুইআটির নবীন বিশ্বাস

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক : পায়েস খাবেন ও।অমিত শাহ। কিন্তু আকাল ভাল নলেন গুড়ের। বাংলার ডেলিকেসি নলেন গুড়ের পায়েস খাওয়াতে হন্যে নবীন বিশ্বাস। কিন্তু শুক্রবার দুপুরে বাগুইআটি থানার জগৎপুর শিমুলতলা আদর্শপল্লিতে এই নবীন বিশ্বাসের বাড়িতেই পাত পেরে  মধ্যাহ্নভোজ করার কথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ’র। আর শেষপাতের মেনুতে  নলেনগুড়ের পায়েসই ঠিক করে রেখেছেন নবীন বিশ্বাস। খাওয়া দাওয়ার আগে জ্যোতিনগর নিউ আদর্শপল্লিতে শ্রীশ্রী হরি গুরুচাঁদ মন্দিরেও যাওয়ার কথা রয়েছে শাহের।
দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর  জন্য নিপাট  নিরামিষ বাঙালি পদ দিয়ে মেনু তৈরি করছেন  নবীন ও তাঁর স্ত্রী সুচন্দ্রা বিশ্বাস। মাটির থালা-বাটিতে অমিত শাহকে দেওয়া হবে শুক্তো, ছোলার ডাল, বেগুনভাজা, মুগের ডাল, পনিরের তরকারি আর জলপাইয়ের চাটনি। থাকবে বাসমতি চালের ভাত এবং রুটি দুই-ই। শেষপাতে থাকবে নলেন গুড়ের পায়েস। আর সমস্যা এখানেই। এখনও  শীত তেমন পড়েনি। তাই  বাজারে এখনও ওঠেনি নতুন গুড়। তাই  দু’দিন ধরে মাথার ঘাম পায়ে ফেলে ঘুরতে হচ্ছে আসবাব ব্যবসায়ী নবীনবাবুকে। মতুয়া সম্প্রদায়ভুক্ত মধ্যবয়স্ক এই ব্যক্তির তিনতলা বাড়ি এখন কার্যত একটা দুর্গের চেহারা নিয়েছে।  পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে মঙ্গলবার ওই বাড়ির প্রত্যেকের কোভিড টেস্ট করা হয়েছে। প্রত্যেকেরই রিপোর্ট নেগেটিভ।  প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, নবীনের বাড়ির চারপাশের বেশ কয়েকটি বাড়ির ছাদের দখল সাময়িকভাবে নিয়ে নেবে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা সংস্থাগুলি। বাড়ির চারপাশ মুড়ে ফেলা হবে নিরাপত্তার চাদরে। এই একই ব্যবস্থা হরি গুরুচাঁদের মন্দিরেও। মন্দির কমিটির তরফ থেকে জানানো হয়েছে, খালি পায়ে প্রবেশ করবেন অমিত শাহ। মাটিতে বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে রীতি অনুযায়ী। প্রবেশের সময় দু’শো জন মহিলা লালপাড় সাদা শাড়ি পরে তাঁকে স্বাগত জানাবেন। থাকবে মতুয়া সম্প্রদায়ের ঐতিহ্য মেনে ডঙ্কাবাদন এবং নিশান ওড়ানোর ব্যবস্থা। পুজো দেওয়ার আগে এই সম্প্রদায়ের প্রতীক হিসাবে অমিত শাহকে দেওয়া হবে আচিয়ার মালা। প্রসাদ হিসেবে থাকবে একটি বিশেষ দোকানের সন্দেশ।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 + 5 =

Back to top button