কলকাতা

কোনো ব্যাক্তির জন্য দল ছাড়বো না : সৌমিত্র খাঁন

নিউস বেঙ্গল 365, নিউসডেস্ক: দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে সৌমিত্র খাঁন ফিরে এলেন যুব মোর্চার হোয়াটসঅ্যাপ গোষ্ঠীতে, আর জানিয়ে দিলেন, পদত্যাগ করছেন না রাজ্য যুব মোর্চার সভাপতির পদ থেকে। যুব মোর্চার হোয়াটসঅ্যাপ গোষ্ঠীতে তিনি জানিয়েছেন, ‘কোনও কমিটি চেঞ্জ হচ্ছে না। আর তোমাদের ছেড়ে থাকাও সম্ভব নয়। তাই ফিরে এলাম। টিএমসিকে হারানোর জন্য সব কিছু ত্যাগ করতে রাজি আছি। জয় শ্রীরাম, জয় মা দুর্গা, বিজেপি জিন্দাবাদ, মোদীজি জিন্দাবাদ।’ তারপর, মহাঅষ্টমীর সন্ধ্যায় সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও বার্তায় দিলীপ ঘোষের নাম না করে খোঁচা দিয়ে জানালেন, ‘অভিমান হয়েছিল ঠিক কথা, কিন্তু কোনো ব্যাক্তির জন্য দল ছাড়বো না।’ প্রসঙ্গত, সপ্তমীতে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ সৌমিত্র খানের ঘোষিত সমস্ত কমিটি বাতিল করে দেওয়ার পর আজ অষ্টমীর সকালবেলায় রাজ্য যুব মোর্চার সভাপতি পদত্যাগ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন যুব মোর্চার হোয়াটসঅ্যাপ গোষ্ঠীতে। সৌমিত্রর ইস্তফা দেওয়ার প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘ও কখন গিয়েছে, কখন ফিরেছে কিছুই জানি না। সবটাই হোয়াটসঅ্যাপে হয়েছে। এ বিষয়ে যা ঠিক হওয়ার, পুজোর পর সব হবে’। রাজ্য বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে, সৌমিত্রর ইস্তফা দেয়ার ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই কৈলাশ বিজয়বর্গীয় ও শিব প্রকাশ দিলীপ ঘোষকে ফোন করেন। দিলীপ ঘোষ তাঁদের জানিয়ে দেন, সৌমিত্র খান দলের মধ্যে সমান্তরাল সংগঠন তৈরি করছিলেন বলে কমিটি ভেঙে দিয়েছেন। অন্যদিকে, মুকুল রায়ের ঘনিষ্ঠবৃত্তে থাকা বিজেপি নেতা শঙ্কুদেব পণ্ডা রাজ্য যুব মোর্চা সভাপতির সমালোচনা করে বলেন, ‘সৌমিত্র খাঁন অপরিণত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এতে তাঁর নিজের ক্ষতি হবে, সেই সঙ্গে দলেরও ক্ষতি হবে’। অপরদিকে, শঙ্কু রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষেরও সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, ‘দিলীপদা এই সমস্যার সমাধান অন্যভাবেও করতে পারতেন। নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে করলে একুশের নির্বাচনের আগে বিতর্ক তৈরি হত না’। যদিও রাজনৈতিক মহলের অভিমত, শঙ্কুদেব পণ্ডার মুখ দিয়ে প্রকারান্তরে বিজেপি সর্ব ভারতীয় সভাপতি মুকুল রায় দিলীপ ঘোষের প্রতি একটি বার্তা দিলেন।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button