কলকাতা

শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে যোগদান শুধু সময়ের অপেক্ষা।

নিউস বেঙ্গল 365, নিউসডেস্ক: অতীতে অনেক লড়াইয়ের সাক্ষী নন্দীগ্রাম থেকে তৃণমূলের পায়ের তলার মাটি আস্তে আস্তে সরছে। শুভেন্দু অধিকারীর গড় নন্দীগ্রামের প্রায় ২০০ জন তৃণমূলের পতাকা ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন। অন্যদিকে ক্ষমতা হারানো সিপিএম তাঁদের বহুদিন ধরে বন্ধ হয়ে যাওয়া অফিসগুলি খুলছে বা খোলার চেষ্টা করছে। নন্দীগ্রাম তথা পূর্ব মেদিনীপুরে তৃনমুলের সেই সুদিন আর নেই। পূর্ব মেদিনীপুরে তৃণমূলের ভাঙ্গনের পিছনে অনেকেই ‘পার্টিতে অসম্মানিত’ শুভেন্দু অধিকারীর হাত দেখছেন। নন্দীগ্রাম আন্দোলনে একদম সামনের সারিতে দাঁড়িয়ে নেতৃত্ব দেয়া শুভেন্দু অধিকারী ক্রমশ কোনঠাসা হয়ে যাচ্ছিলেন দলে। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে তিনিও নিজেকে আস্তে আস্তে গুটিয়ে নিচ্ছিলেন। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে তাঁর বিজেপিতে যোগদানের কথা শোনা যাচ্ছিল। বিজেপির অন্দরমহল থেকেও শোনা যাচ্ছিল একই কথা। আশ্চর্যজনকভাবে বিজেপিতে তাঁর যোগদানের খবরে শুভেন্দু কিন্তু কখনোই কোনো প্রতিক্রিয়া দেননি। বেশ কিছুদিন ধরে পূর্ব মেদিনীপুর সহ একাধিক জেলায় ‘জননেতা শুভেন্দু অধিকারী’ বলে ব্যানার, পোস্টার দেখা যাচ্ছে, অথচ সেখানে তৃণমূলের নামগন্ধ নেই। তাঁর রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে বিভিন্ন কথা শোনা গেলেও শুভেন্দু অধিকারী যে তৃণমূল ছাড়ছেন একথা ধরে নেয়া যেতেই পারে তাঁর অনুগামীদের কথায়। অন্যদিকে শুভেন্দু নিজে রবিবার নেতাই থেকে বার্তা দিয়েছেন, চন্দ্র, সূর্য, পৃথিবী যতদিন থাকবে, যতদিন শুভেন্দু অধিকারী হাঁটতে চলতে পারবে, জনগণের সঙ্গে ছিলেন, আছেন, ভবিষ্যতেও থাকবেন। তিনি বলেন, ‘তাঁর লক্ষ্য, কাজ, দায়বদ্ধতা থেকে কেওই কখনো তাঁকে সরিয়ে দিতে পারেনি, ভবিষ্যতেও পারবেও না’। তাঁর এই বার্তা যে প্রকারন্তরে দলের নেতৃত্বের প্রতি সেকথা বুঝতে অসুবিধা হয়নি রাজনৈতিক তথ্যবিজ্ঞমহলের। গল্পচ্ছলে বিজেপির এক সাংসদ জানালেন, ‘শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে যোগদান শুধু সময়ের অপেক্ষা। উনার মতো বড়ো মাপের নেতার জন্য বড়ো প্লাটফর্ম দরকার, আর সেটারই প্রস্তুতি চলছে। পুজোর পর সব কিছু হবে।’ তিনি আরো জানালেন, ‘নভেম্বর মাসে অনেক কিছুই ঘটতে চলেছে।’

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button