কলকাতা

সিন্ডিকেটের সঙ্গে জড়িতদের সামনে রাখলে চলবে না: সৌগত রায়।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক : দলে সিন্ডিকেট যে রাজ চ্লছে, আর তারাই যে তৃণমূলের সামনে সারির মুখ, কর্মীসভায় দাড়িয়ে তা মেনে নিলেন সৌগত রায়। পাশাপাশি ২১ এর নির্বাচনে এই “মুখ” সামনে আনলে যে সমুহ বিপদ, তাও মনে করিয়ে দিলেন বর্ষীয়ান এই সাংসদ।  দমদমে তৃণমূলের কর্মী সভায়  এইকথাই  বললেন  সৌগত রায়।  এতদিন ধরে এই সিন্ডিকেট রাজ নিয়ে রাজ্যের শাসক দলের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ তুলছিল বিরোধীরা। এবার কার্যত তাতেই সিলমোহর দিলেন দমদমের সাংসদ। তিনি বলেন, ” ইট, বালি, চুন-সুরকি ব্যবসার সঙ্গে যাঁরা জড়িত, সেই মুখগুলো যেন সামনে না আসে। বুথ এজেন্ট হিসেবে তাঁদের যেন ব্যবহার না করে দল। মানুষ এই মুখগুলোকে ভালভাবে নেন না। ভোটের সময় তাঁদের পিছনের সারিতে রেখে স্বচ্ছ ভাবমূর্তির মানুষদের সামনে নিয়ে আসতে হবে।” এদিনের এই কর্মীসভায় দমদম বিধানসভা এলাকার ২৭১ টি পার্টের একজন করে বুথ এজেন্ট উপস্থিত ছিলেন। ছিলেন শীর্ষনেতৃত্বও। তাদের সামনেই তৃণমূলে  স্বচ্ছতার বার্তা দিলেন সৌগত রায়। তার বক্তব্য, “দলে যাঁদের ভাবমূর্তি খুব একটা স্বচ্ছ নয়, প্রয়োজনে তাঁদের বলতে হবে দলে থাকুন কিন্তু ভোটের সময় আমার পাশে ঘোরাঘুরি করবেন না।  আর  মিছিলে তাঁদের  একবারে শেষ সারিতে রাখুন। ভাল হয় যদি তাঁদের বাদ দিয়েই কর্মসূচি গ্রহণ করলে।” এদিন দমদমের অরো সিনেমা হলে  দলীয় কর্মীদের নিয়ে একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার আহ্বায়ক ছিলেন বিধায়ক ও মন্ত্রী  ব্রাত্য বসু। তবে  তিনি সাংসদের বক্তব্যের বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি। । এদিনের সভায় হাজির ছিলেন দমদমের তৃণমূলের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। বরুণ নট্টো, প্রবীর পাল, দেবাশিস বন্দ্যোপাধ্যায়, দয়াময় ভট্টাচার্য, রাজু সেনশর্মা প্রমুখ।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button