কলকাতা

টেক্কা দেওয়ার রাজনীতি করছেন মুখ্যমন্ত্রী: বাবুল সুপ্রিয়

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক : কেন্দ্রের নির্দেশিকার বাইরে গিয়ে ‘আনলক-৫’এ একক সিদ্ধান্তে সিনেমা হল খোলার ঘোষনাকে তীব্র কটাক্ষ করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। কেন্দ্রীয় নির্দেশিকা অনুযায়ী ১৫ অক্টোবর থেকে সিনেমা হল খুলবে গোটা দেশে। কিন্তু কার্যত সেই নির্দেশ না মেনেই ১ লা অক্টোবর থেকে রাজ্যে সিনেমা হল খুলে দেওয়ার কথা ঘোষনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর রাজ্য সরকারের এই নির্দেশিকা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় লম্বা একটি পোস্ট লিখলেন বাবুল সুপ্রিয়। কেন্দ্রের নির্দেশ না মেনে এই সিদ্ধান্ত নেওযায় বাবুল সুপ্রিয়র মন্তব্য, ”এটা টেক্কা দেওয়ার রাজনীতি।” ইতিমধ্যেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  টুইটারে জানিয়ে দেন যে, অক্টোবরের ১ তারিখ থেকে সিনেমা হল-সহ সমস্ত বিনোদনমূলক মঞ্চ খুলে যাচ্ছে। তবে মাত্র ৫০ শতাংশ দর্শক নিয়ে চালু হবে সিনেমা হল, নাটক, থিয়েটার। তবে  আনলক – ৪’এর শেষ দিন কেন্দ্রের নির্দেশিকায়  আনলক- ৫ পর্যায় ১ অক্টোবর থেকে শুরু হলেও, সিনেমা হল খোলার কথা রয়েছে ১৫ তারিখ থেকে। অর্থাৎ রাজ্যের সঙ্গে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের ফারাক স্পষ্ট। এরপরই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বাবুল সুপ্রিয় এ নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি তোপ দেগেছেন ফেসবুক পোস্টে। শুক্রবার ফেসবুক পোস্টে তিনি লেখেন যে, ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির একজন সদস্য হওয়ায় সিনেমা হল খোলা কিংবা সবটা চালু হয়ে যাওয়ার প্রয়োজনীয়তা তিনি বোঝেন। কিন্তু তারপরও সন্দিহান যে এতে সংক্রমণ আরও বাড়বে কি না। এরপরই তিনি মমতার বিরুদ্ধে তোপ দেগে লেখেন, ”সব কিছুতেই টেক্কা দিতে চান বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। এই নির্দেশও সেই টেক্কা দেওয়ার রাজনীতি। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইটাকেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজনীতির বাইরে রাখতে পারছেন না।”

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button