কলকাতা

রাজ্যপালকে “নৈরাজ্যপাল” বলে কটাক্ষ ব্রাত্য বসুর।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক : গান্ধীজয়ন্তীর দিন জনক মহাত্মা গান্ধীকে শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে রাজ্য সরকারকে নিশানা করেন  রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় । আর তার পালটা জবাব দিলেন ব্রাত্য বসু। রাজ্যপালকে ‘নৈরাজ্যপাল’ বলে তীব্র কটাক্ষ করলেন তিনি। গান্ধীঘাটে গান্ধীমূর্তিতে মাল্যদান অনুষ্ঠানে ধনকড়ের আচরণে বিরক্ত হয়ে ব্রাত্য বসুর এহেন মন্তব্য।  নিয়ম মেনে বারাকপুরের গান্ধীঘাটের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। করোনা আবহে স্বভাবতই দূরত্ববিধি মেনে, যথাসম্ভব ভিড় এড়িয়ে ছোট অনুষ্ঠান হয় এদিন। দর্শক প্রবেশ ছিল নিষিদ্ধ। তবে  অনুষ্ঠানের পরে  রাজ্যপাল সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন, ” রাজ্য সরকার সংবিধানকে অপমান করছে। রাজ্যপালকেও অপমান করা হচ্ছে। তার মানে রাজভবনেরও অপমান।” তবে এখানেই শেষ নয়,  এরপর টুইটেও ফের  সরকারকে আক্রমণ  করেন তিনি। শুক্রবার গান্ধীঘাটের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে রাজ্যপালকে পাল্টা দিলেন রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু। ব্রাত্য বসু বলেন,” উনি উত্তর প্রদেশ নিয়ে কথা বলছেন না কেন? ওখানকার ডিএম কি করেছেন সেটা কি উনার চোখে পড়েছে? রাজনৈতিক কথা বলছেন তাতে উনি রাজ্যপাল পদটির আগে ‘নৈ’ কথাটি যোগ করে নিন। নৈরাজ্যপাল হয়ে যাবেন।” তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও  রাজ্যপালের বিরুদ্ধে গর্জে উঠতে দেখা গিয়েছে মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিমকে। এবার সেই তালিকাতেই যুক্ত হলেন ব্রাত্য বসু। বুঝিয়ে দেওয়া গেল, মমতা সরকারের উদ্দেশে রাজ্যপালের কোনওরকম কটাক্ষের জবাব দেবেনই মন্ত্রীরা।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button