কলকাতা

খাস কলকাতা শহরে ভূতের ভয়।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক। খাস কলকাতা শহরে ভূতের’ ভয়। আর সেই অভিযোগেই পুলিশের দ্বারস্থ তনুশ্রী দে নামে এক বৃদ্ধা।  তাঁর অভিযোগ, এলাকার কিছু যুবক নাকি তাঁকে মুখোশ পরে ও বিভিন্নভাবে ‘ভূতের’ ভয় দেখানোর চেষ্টা করছে। আর বাড়ির নীচতলার ভাড়াটিয়া চলে যেতেই শুরু হয়েছে এই ভৌতিক কান্ড।  স্থানীয় সূত্রে খবর,  দক্ষিণ কলকাতার  বাঁশদ্রোণী থানা এলাকার বিবেকানন্দ পার্ক এলাকার বাসিন্দা।  বৃদ্ধা তনুশ্রী দে’র বক্তব্য, ” আমি বাড়িতে  একাই থাকি। গত দু’মাস ধরে এই সমস্যার শুরু হয়েছে।” তার অভিযোগ,  মাঝেমধ্যেই তাঁর বাড়ির চারপাশে ঘুরে বেড়ায় কারা। এমনকি  বাড়ির গাছের উপর থেকে আসে অদ্ভুত সব আওয়াজ। রাতবিরেতে জানালায় টোকা পড়ে। জানালা খুলতেই দেখেন, বীভৎস সব মুখ।  অব্স্থা এইরকম, যে ‘ভূতের’ রাতে প্রায়  ঘুম নষ্ট হওয়ার জোগার। বৃদ্ধার বক্তব্য, ” পুলিশ এসে বাড়ি ঘুরে গিয়েছে। তবে এই বিষয় তাদের কিছু করার নেই বলে জানিযেছে।  অপরদিকে পুলিশ থেকে শুরু করে স্থানীয়রা কেউ একে আসল ভূতের উপদ্রব মানতে নারাজ। যা কিছুটা হলেও মেনে নিচ্ছেন ওই বৃদ্ধা। তার বক্তংব্য,  “এলাকার কয়েকজন যুবক,  নেশাগ্রস্ত অবস্থায়  বাড়ির আশপাশে যাতায়াত শুরু করেছে।  দৌরাত্ম্য শুরু করেছে। ” এর মধ্যে এক যুবক তাঁর বাড়ির গাছে উঠে তাঁকে ভয় দেখায়। আবার কয়েকজন যুবক মুখোশ পড়ে রাতদুপুরে ঘুরে বেড়ায় তাঁর বাড়ি চারপাশে। গত দু’মাস ধরে ক্রমাগত তারা ‘ভূতের’ ভয় দেখিয়ে চলেছে, এমনই অভিযোগ প্রৌঢ়ার। উল্লেখ্য, এর আগে এই প্রৌঢ়ার বাড়িতে ভাড়া থাকত একটি পরিবার। তাঁরা অন্য জায়গায় চলে যাওয়ার পর থেকেই এই সমস্যা বেড়ে গিয়েছে। তার উপর বাড়ছে মানসিক চাপ। তিনি স্থানীয় বাসিন্দাদের বিষয়টি জানান। এরপর পুলিশের কাছে অভিযোগ জানানো হয়। পুলিশ ও এলাকার বাসিন্দাদের মতে, এর পিছনে কোনও প্রোমোটারি চক্র থাকার সম্ভাবনাও রয়েছে। তারা চাইছে, যেভাবেই হোক তিনি বাড়ি থেকে চলে যান। প্রৌঢ়ার অভিযোগ, তাঁকে বাড়ি থেকে উৎখাত করার চেষ্টা চলছে। সেজন্যই ভয় দেখান হ্চ্ছে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button