কলকাতা

ফালাকাটা উপনির্বাচন জিততে মমতার বাজি রাজীব ব্যানার্জি।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক: দলে ফের গুরুত্ব বাড়ল রাজীব  বন্দ্যোপাধ্যায়ের। উপনির্বাচন জিততে মমতার বাজি তিনি। সাংগঠনিক রদবদলে পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে কোর কমিটিতে নিয়ে আসা হয় বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে। এবার ফের আরও একবার গুরুত্ব বাড়ানো হল এই মুহুর্তে তৃণমূলের অন্যতম মুখ রাজীবের। ফালাকাটার উপ-নির্বাচনে দায়িত্ব দেওয়া হল তাকে। বিশ্বস্ত ১৩ জন নেতাকে “বিশেষ দায়িত্ব” দিয়েছেন তিনি। ফালাকাটা উপনির্বাচনকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আসলে ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে এই উপনির্বাচনকে অ্যাসিড টেস্ট হিসাবে দেখছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিশেষ করে লোকসভা নির্বাচনে এই উত্তরবঙ্গ থেকে কার্যত খালি হাতে ফিরতে হয়েছে তৃণমূলকে। আটটি আসনই খোয়াতে হয়েছিল প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপির কাছে। তাই এই উপ-নির্বাচনের হাত ধরে তিনি বুঝে নিতে চাইছেন বাংলার রাজনৈতিক পরিস্থিতি আসলে কী। তাই কোনও ঝুঁকি তিনি নিতে চাইছেন না। আগেই পাঠিয়েছিলেন ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তবে প্রাক্তন এই সিপিএম সাংসদকে নিয়ে এরইমধ্যে দলের অন্দরেই ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। তাই ঋতব্রত’র ওপর খুব একটা ভরসা করতে পারছেন না তৃনূমুল সুপ্রিমো। তাই  এবার রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিশেষ দায়িত্ব দিয়ে তিনি ময়দানে নামিয়ে দিলেন। ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গে বিশেষ ভালো ফল করতে পারেনি তৃণমূল কংগ্রেস। তারপর সাফল্য বলতে কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচনে পিছিয়ে থেকেও জয়। আর এই জয়ের মূল সেনাপতি ছিলেন রাজীব  বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার ফালাকাটা কেন্দ্রটি ধরে রাখার চ্যালেঞ্জ তৃণমূলের সামনে। তাই কোনও ঝুঁকি নিয়ে চায় না তৃণমূল। ফালাকাটায় এক অভিনব রণনীতি নিয়েছে তৃণমূল।  ১৩টি গ্রাম পঞ্চায়েতে ১৩ জন পর্যবেক্ষক নিয়োগ করেছেন রাজীব। এই পর্যবেক্ষক নিজস্ব টিম গঠন করে এলাকার ভোটব্যাঙ্ক আরও শক্তিশালী করার চেষ্টা করবেন। আসলে, তৃণমূল চাইছে বুথ ধরে ধরে অঙ্ক কষে এগোতে। সম্প্রতি ব্লক পার্টি অফিসে একটি বৈঠকের মাধ্যমে স্থির করা হয়েছে পর্যবেক্ষকদের নাম। অঞ্চলভিত্তিক ওই পর্যবেক্ষক-সহ মোট ৩০ জন দলীয় পর্যবেক্ষক নিয়োগ করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে পরামর্শ নিয়ে অঞ্চল সভাপতিরা কাজ করবে। ভোট প্রচারে কোন কোন অঞ্চলে বেশি গুরুত্ব দেওয়া দরকার তাও স্থির হয় বৈঠকে। ২০ সেপ্টেম্বর আরও একটি বৈঠক হবে। সেই বৈঠক হবে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের পৌরহিত্যে। সেখানে দলের রণনীতি নিয়ে আলোচনা করবেন তিনি। দেবেন প্রয়োজনীয় পরামর্শ। কোন পথে বিজেপিকে মোকাবিলা করে ফালাকাটা কেন্দ্রটি ধরে রাখা সম্ভব হবে, তা নিয়েই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। সিদ্ধান্ত হবে ভোটব্যাঙ্ক বৃদ্ধি নিয়েও। তৃণমূল কংগ্রেস এই উপনির্বাচন জিতে ১০০ শতাংশ সাফল্য নিয়ে ২০২১-এ বিজেপির মোকাবিলায় নামতে চাইছে। এর আগে তিনটি উপনির্বাচনে তৃণমূল জয়ী হয়েছে। বিরোধীদের কাছ থেকে তার মধ্যে দুটি কেন্দ্র ছিনিয়ে নিয়েছে তারা। আর একটি কেন্দ্রে নিজেদের অগ্রগতি ধরে রেখেছে। এবার টার্গেট ফালাকাটা জয়। রাজীব বলেন,” এই জয়ও হাসিল করব আমরা। যখনই ভোট হোক জিতব আমরাই।”

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button