কলকাতা

মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল কলকাতা পুলিশের প্রথম মহিলা ওসির।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক : পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল কলকাতা পুলিশের প্রথম ওসি  ও কলকাতা পুলিশের ডেপুটি কমিশনার দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায়ের( ৪৫)। বর্তমানে শিলিগুড়ির ডাবগ্রামে কমান্ডিং অফিসার হিসাবে পোস্টিং ছিলেন তিনি। বেহালার বাড়ি থেকে কর্মস্থলে ফেরার পথে এই মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনাটি ঘটে। দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায় ছাড়াও ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয়েছে তার নিরাপত্তা রক্ষী তাপস বর্মন ও গাড়ির চালক মনোজ সাহার। আজ ভোর ৭ টা নাগাদ  ২ নম্বর জাতীয় সড়কের কাছে হুগলীর দাদপুরে হোদলা ব্রীজের উপর একটি বালি বোঝাই ১২ চাকার লরির পিছনে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ধাক্কা মারে পুলিশের স্করপিওটি। দুমড়ে মুচড়ে যায় দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায়দের গাড়িটি। সম্ভবত ঘুমিয়ে পড়েছিলেন চালক। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে সেই সময় টহলদারীতে থাকা সিভিক ভলেন্টিয়াররা ছুটে এসে ৩ জনকে উদ্ধার করে চুচুড়া ইমামবাড়া হসপিটালে নিয়ে যাওয়া হলে তাদের মৃত বলে ঘোষনা করেন চিকিৎসকেরা। ২০১০ সালে উত্তর বন্দর থানায় কলকাতা পুলিশের প্রথম মহিলা ওসি হিসাবে দায়িত্ব নেন তিনি। পরে শিলিগুড়ির ডাবগ্রামে ১২ ব্যাটেলিয়ানের কমান্ডিং অফিসার হিসাবে পোস্টিং পান। বুধবারই বেহালার পর্ণশ্রীতে নিজের বাড়ি আসেন আপাদমস্তক সত পরিশ্রমী এই পুলিশ অফিসার। দেবশ্রী চ্যাটার্জির
মৃত্যুর খবর পেয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় এক শোকবার্তায় জানান, ‘আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। তিনি আজ হুগলির দাদপুরে এক পথ দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান। বয়স হয়েছিল ৪৫ বছর। দক্ষ এই পুলিশ আধিকারিক  পরিশ্রম ও নিষ্ঠার গুণে ডেপুটি কমিশনার পর্যায়ে উন্নীত হন। রাজ্য পুলিশেও তিনি কর্মকৃতির স্বাক্ষর রাখেন। মানবপাচার রোধে উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য তিনি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পান। তাঁর মৃত্যুতে আমরা এক দক্ষ পুলিশ অফিসারকে হারালাম। আমি দেবশ্রী চ্যাটার্জির পরিবার-পরিজন ও অনুরাগীদের আমার আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি।’

Attachments area

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button