কলকাতা
Trending

“শুধরে যান নয়ত বাংলার মানুষ শুধরে দেবে” তৃণমূলকে চ্যালেঞ্জ অগ্নিমিত্রার।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক: তৃণমূলকে “শুধরে” যাওয়ার পরামর্শ  অগ্নিমিত্রা পালের।  এদিন মুখ্যমন্ত্রীকে একহাত নিয়ে নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ এর প্রতিনিধিকে  তিনি বলেন, “ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের প্রাপ্য টাকা, রেশনের চালের বস্তার পর মায়ের কোল ফাঁকা করার প্রজেক্ট যারা হাতে নিয়েছেন তাদের বলছি এখনও সময় আছে, শুধরে যান, নাহলে বাংলার মানুষ আপনাদের শুধরে দেবে।”  ইতিমধ্যেই একাধিক ইস্যুতে রাজ্যের বিরুদ্ধে  ক্ষোভ উগরে দিতে দেখা গিয়েছে বিজেপি মহিলা মোর্চার সভাপতিকে। এমনকি সাম্প্রতিক শান্তিনিকেতনে পৌষ মেলার মাঠে পাচিল দেওয়া নিয়েও খোদ অনুব্রত মণ্ডলের গড়ে দাড়িয়েই তৃণমূলকে একহাত নেন অগ্নিমিত্রা। সামনে বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে রাজ্যের শাসকদলের বিরুদ্ধে ” অল আউট” আক্রমণে যেতে চাইছে কেন্দ্রের শাসকদল। বৃহস্পতিবার সেই আক্রমণকে আরও একটু বাড়তি অক্সিজেন দিলেন মহিলা মোর্চা সভাপতি। বুধবার ইটাহারের নন্দনগ্রামে মারা যান বিজেপি কর্মী অনুপ রায়। গোটা ঘটনা নিয়ে উত্তেজনা ছড়ায় রায়গঞ্জে। পুলিশের তরফে এই মৃত্যুর পিছনে বিজেপি কর্মী অনুপ রায়ের ” অসুস্থতা” কে দায়ী করলেও গেরুয়া শিবিরের মতে শুধুমাত্র বিজেপি করার            ” অপরাধে” পুলিশ  পিটিয়ে খুন কড়েছে অনুপ রায়কে। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে অগ্নিমিত্রা পাল বলেন,”  প্রায় প্রতিদিনই বাংলার কোনো না কোনো প্রান্তে নিয়ম করে এই ঘটনা ঘটিয়ে চলেছে তৃণমূল নামক রেজিস্টার্ড গুন্ডা ও চোর বাহিনীর সদস্যরা।”  বাংলায় গণতন্ত্র নেই বলেও এদিন দাবী করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়কে “হিটলার”ও মন্তব্য মহিলা মোর্চার রাজ্য সভাপতি। বলেন,”  বাংলায় গণতন্ত্র নেই। বিরোধীদের রাজনীতি করার স্বাধীনতা নেই। হিটলারের ইতিহাসকেও চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে দিয়েছেন মাননীয়ার প্রশাসন। আপনাকে ধিক্কার জানাচ্ছি”। ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করেছে গেরুয়া শিবির। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, 2১ এর লড়াই দুই ফুলের। আর তাই কেউ কাউকে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়তে নারাজ। এদিন কার্যত মমতার “বদল  চাই” শ্লোগানকে সামনে রেখেই মুখ্যমন্ত্রীকে সরাসরি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন অগ্নিমিত্রা পাল। তার বক্তব্য, ” মমতা বন্দোপাধ্যায়কে বলছি  কান খুলে শুনে রাখুন সাধারণ মানুষকে সঙ্গে নিয়ে আমরা এর বদলাও নেব, বদলও করবো। আপনি পারলে আপনার খুনী ভাইদের বাঁচান। বাংলার গণতন্ত্র আমরা পুনরুদ্ধার করবই। চ্যালেঞ্জ করলাম”। এখানেই শেষ নয়, তার আরও বক্তব্য, “আপনি অনেক অত্যাচার করছেন এবার হিসেব বরাবর করার পালা,  বাংলার মানুষ আপনাকে মসনদ থেকে উৎখাত করার জন্য শপথ নিয়ে নিয়েছেন। শাস্তি পেতে তৈরী থাকুন”।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button