কলকাতা

কথার খেলাপ করছে কেন্দ্র, মোদিকে চিঠি মমতার।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক : করোনা আবহে বকেয়া পড়েছে  জিএসটি  বাবদ ক্ষতিপূরণ। এই ক্ষতিপুরণ  মিটিয়ে দেওয়ার জন্য একাধিকবার অনুরোধেও চিড়ে ফেজেনি। এবার তাই  সোজাসুজি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে  চিঠি লিখলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সঙ্গে দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামো বজায় রাখার কথাও মনে করিয়ে দিলেন তিনি। করোনার আগে থেকেই  অর্থনীতি ধুঁকছিল।

এরপর মহামারীর  প্রভাবে  একপ্রকার দেশের অর্থনীতির কোমর ভেঙে পড়েছে। টান পড়ছে  রাজকোষেও। ২০১৯-২০ আর্থিক বছরের প্রথম তিন মাসে (এপ্রিল থেকে জুন) যেখানে ৩.১৪ লক্ষ কোটি টাকা জিএসটি আদায় হয়েছিল, সেখানে এবছর হয়েছে মাত্র ১.৮৫ লক্ষ কোটি টাকা। জিএসটি আদায়ের হার প্রায় অর্ধেক হয়ে যাওয়ায় বিপদে পড়েছে কেন্দ্র। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যগুলিকে জিএসটি ক্ষতিপূরণ দেওয়া সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ।

আর এরই প্রতিবাদে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখলেন মমতা।  চিঠিতে রাজ্যের  মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন,”GST নিয়ে যে সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছে তাতে আমি গভীর ভাবে ব্যথিত। এটি ভারত সরকারের নৈতিক প্রতিশ্রুতিভঙ্গের সামিল। যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোরও পরিপন্থী।” এ প্রসঙ্গে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, “২০১৩ সালে অরুণ জেটলি বলেছিলেন, তৎকালীন কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যগুলিকে পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ দেবে না বলে GST রূপায়ণের বিরোধিতা করছি।

১৪ মার্চ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী বলেছিলেন, GST ক্ষতিপূরণ দিতে বদ্ধপরিকর কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু এখন নিজেদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি রাখতে পারছে না বিজেপি।” মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন,  “GST ক্ষতিপূরণ না পেলে রাজ্যগুলিকে কোটি-কোটি টাকা ধার করতে হবে। তাতে রাজ্যগুলির অবস্থা আরও করুণ হবে।”

এ বিষয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর পরামর্শ, “কেন্দ্রীয় সরকার ঋণ নিলে কম সুদ দিতে হয়। তই কেন্দ্রের উচিৎ টাকা ধার করে রাজ্যগুলিকে দেওয়া।” প্রসঙ্গত, জিএসটি  বাবদ ক্ষতিপূরণ দিতে  না পারায় রাজ্য সরকারগুলিকে বাড়তি ঋণ নেওয়ার অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু কেন্দ্রের সেই প্রস্তাব মানতে নারাজ বহু রাজ্যই।
lতবে একা মমতা নন, এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছে আরও পাঁচ’টি অবিজেপি রাজ্য। এঁদের মধ্যে রয়েছে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী ই কে পালানস্বামী, ছত্তিশগড়ের ভূপেশ বাঘেল ও কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। 

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button