কলকাতা

করোনার মধ্যেও রাজ্যে কর্মসংস্থান বেড়েছে: পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক: করোনা আবহেও রাজ্যে কর্ম সংস্থান বৃদ্ধি পেয়েছে বলে দাবি তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যাযের। বুধবার নাকতলায় সাংবাদিকদে মুখোমুখি হয়ে এই দাবি করলেন তিনি। পাশাপাশি কেন্দ্রের বিরুদ্ধে জোড়দার আন্দলনের ডাক দিলেন তিনি। আম্ফান থেকে জিএসটি, এমনকি উন্নয়নের একাধিক ক্ষেত্রে কেন্দ্র অর্থ বরাদ্দ দিচ্ছে না বলে এদিন ক্ষোভ উগরে দেন তিনি। বিশেষ করে কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে মোদী সরকারের ব্যার্থতা তুলে ধরে পার্থ চট্টোপাধ্যাযের বলেন, ” এই বাধ্যবাধকতার মধ্যেও আমাদের রাজ্যে ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্পের মাধ্যমে ৪০ % বেকারত্ব কমানো গিয়েছে। গোটা দেশে যখন বেকারত্ব বাড়ছে তখন আমাদের রাজ্যে নতুন কাজের সুযোগ তৈরি হয়েছে।” উল্লেখ্য সাম্প্রতিক রিপোর্ট অনুযায়ী বিগত ৪৫ বছরের মধ্যে নরেন্দ্র মোদী সরকারের আমলে সর্বাধিক বেকারত্ব বৃদ্ধি পেয়েছে। এর পাশাপাশি রাজ্যেকে বঞ্চনাও করছে বিজেপি সরকার। এই দাবিতে এবার ত্রিফলা আক্রমণের জায়গায় যাচ্ছে রাজ্যের শাসক দল। আগামী ৮ সেপ্টেম্বর করোনা ও আম্ফান নিয়ে রাজ্যের প্রাপ্য বুঝতে, রাজ্যের প্রতি ব্লক, ওয়ার্ডে প্রতিবাদ মিছিল ও সভা করা হবে বলে জানান পার্থ। বলেন, ” আম্ফান আর করোনা নিয়ে রাজ্যকে কোন সাহায্য করেনি কেন্দ্র। এর বিরুদ্ধে রাস্তায় নামতে হবে। অর্থ বন্ধ করে দিয়ে ইচ্ছাকৃতভাবে উন্নয়নে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। এ ছাড়া ” পাওনা দাও, প্রাপ্য দাও” শ্লোগান কে সামনে রেখে প্রতি ব্লকে একইভাবে প্রতিবাদ মিছিল ও সভা করতে হবে বলে জানান তিনি। বলেন, ” যেভাবেই হোক প্রাপ্য টাকা আমাদের দিতেই হবে। মানুষকে সঙ্গে নিয়ে লড়তে হবে। কেন্দ্রের জনস্বার্থ বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে রাস্তায় নামবে তৃণমূল।” তবে এখানেই শেষ নয়, রাষ্ট্রায়ত্ত লাভজনক সংস্থা বিক্রি করা হচ্ছে বলেও এদিন অভিযোগ করেন তিনি। বলেন, ” আগামী 20 সেপ্টেম্বর কাজের দাবীতে কর্মী ছাটাই য়ের প্রতিবাদে পথে নামবে তৃণমূল।” তিনি আরো বলেন,” মনে রাখবেন রাস্তাই আমাদের পথ দেখাবে। আমাদের কন্ঠ রোধ করা যাবে না।” আর কয়েকমাস পরই বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে আগামীদিনে যে বিজেপিকে এক ইঞ্চি জমিও ছেড়ে দেবে না তৃণমূল এদিন তা আরও স্পষ্ট করে দেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button