কলকাতা

ফরওয়ার্ড ব্লক বিধায়কের সঙ্গে একান্তে বৈঠক পিকের।

নিউস বেঙ্গল 365, নিউজডেস্ক উত্তর দিনাজপুরের চাকুলিয়র ফরওয়ার্ড ব্লক বিধায়ক আলি ইমরান রামজ( ভিক্টর)এর দাবি, মন্ত্রীত্বের বদলে তাঁকে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছেন খোদ প্রশান্ত কিশোর। দাবি অনুযায়ী, অগাস্ট মাসের শেষ সপ্তাহে পরিবার নিয়ে শহরের একটি পাচতারা হোটেলে যান এই বিধায়ক। আর সেই হোটেলেই আছেন পিকে। ভিক্টরের বক্তব্য, ” আমার মোবাইলে হঠাৎ পিকের ফোন আসে। উনি বলেন আমার সঙ্গে একটু বসতে চান।” তথ্য অনুযায়ী, এরপর একান্তে প্রায় ৪৫ মিনিট বৈঠক হয় দুজনের। আর সেখানেই তাকে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার প্রস্তাব দেন পিকে। বদলে মন্ত্রীত্ব দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়। ফরোয়ার্ড ব্লক বিধায়কের বক্তব্য,” আমায় উনি বলেন চাকুলিয়ার এমএলএ টিকিটের পাশাপাশি? ৩ টে গুরুত্বপূর্ণ দফতরের নাম করে যে কোন একটি বেছে নিতে বলেন। আরও কোন চাহিদা থাকলে তাও মেটানো হবে বলে প্রস্তাবও দেন। এছাড়া ও আগমীদিনে রাজ্যে ও কেন্দ্রীয স্তরে বড় দায়িত্ব দেওযা হবে বলে আমায় জানান।”
তবে কি আপনি তৃণমুলে যোগ দিচ্ছেন? ভিক্টরের সাফ কথা, ” না । আমি বলেছি মন্ত্রী, এম পি হওয়ার লোভ নেই। আমার দল আমায় যে দায়িত্ব দিয়েছে আমি তাতেই খুশী। আমার গোটা পরিবার বামপন্থী। আর আমার সাথে চাকুলিয়র সাধারন মানুষ আছে। তাই নীতি বিসর্জন দেওয়ার প্রশ্ন নেই।” গোটা বিষয় নিযে তৃণমূলকে কড়া আক্রমণ করেছেন বাম পরিষদীয়দলনেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন ,” রাজনীতিতে দেউলিয়াপানা নিয়ে এসেছে তৃণমূল। লুটেরাদের দল। তারা একটা সিম্বল নিয়ে পার্টি তৈরি করেছে। এখন বুঝছেন আর সুযোগ নেই। সততার প্রতীক কথা এখন প্রহসন। তাই সত লোক খুজতে হচ্ছে। আর তাই এখন বামপন্থীদের দরকার। আমার কাছে খবর প্রায় ১০ জন বাম বিধায়কের কাছে এই ধরনের প্রস্তাব গিয়েছে।” কংগ্রেসের মূখ্য সচেতক মনোজ চক্রবর্তীর বক্তব্য,” কর্পোরেট কোম্পানী ভাড়া করেও তৃণমূল বুঝতে পারছে যে কোন লাভ হচ্ছে না। তাই এখন কি  নেতা ধরা অভিযান শুরু করেছে। নির্লজ্জ দল।” অন্যদিকে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বক্তব্য, ” যিনি নাকি বলেন বাংলা দেশ শাসন করবে। তাকেই বিহার থেকে ভাড়া করা লোক নিয়ে আসতে হচ্ছে ভোটে জেতার জন্য। পাবলিক চালাকি ধরে ফেলেছে।” তবে এই বিষয় টিম পিকের সঙ্গে যোগাযোগ করে কোন উত্তর পাওয়া যায় নি।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button