কলকাতা

বিশ্বভারতী থেকে রবীন্দ্রনাথকেই মুছে দিতে চাইছেন উপাচার্য: অনুব্রত মন্ডল।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক: শান্তিনিকেতন নিয়ে মুখ খুললেন অনুব্রত মন্ডল। ইতিমধ্যেই পৌষ মেলার মাঠে পাচিল দেওয়া নিয়ে রীতিমত উত্তেজনা ছড়ায় শান্তিনিকেতনে। গ্রিন ট্রাইবুনালের নির্দেশে এই পাচিল তোলা হচ্ছে বলে দাবি করে বিশ্বভারতী কতৃপক্ষ। তবে গোটা ঘটনার প্রতিবাদে ফেটে পড়েন আশ্রমিক থেকে শুরু করে প্রাক্তনীরাও। এমনকি স্থানীয় ব্যাবসায়ি সমিতি থেকে সাধারন মানুষ ও পাশে দাঁড়ায় এই বিক্ষোভের। অপরদিকে বিশ্বভারতীর অভিযোগ, দুবরাজপুরের তৃণমূলের বিধায়ক নরেশ বাউরির নেতৃত্বে ভাঙচুর চালানো হয়। তবে এখানেই শেষ না, এরপর একটি ৭ পাতার বিবৃতি দিয়ে খোদ রবীন্দ্রনাথকেই “বহিরাগত” বলে বিতর্ক তৈরি করেছেন বর্তমান উপাচার্য বিদ্যুত চক্রবর্তী। যা নিয়ে কার্যত তোলপাড় রাজ্য। এতদিন গোটা বিষয় নিয়ে মুখ না খুললেও, বুধবার গোটা বিষয় নিয়ে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করে দিলেন তৃণমূলের  বীরভূম জেলা সভাপতি। এদিন তিনি বলেন , ” আমি যেমন গেট ভাঙার পক্ষে নেই, আবার পৌষ মেলার মাঠে পাচিল দেওয়ার পক্ষেও নয়। এখন যিনি ভিসি, তিনি কিছুই বোঝেন না। ঐতিহ্যও বোঝেনা” ।

এর মধ্যেই গোটা বিষয় নিয়ে তৃনূমুলকে কাঠগড়ায় দাড় করিয়ে উপাচার্যের পাশে দাড়িয়েছে গেরুয়া শিবির। মঙ্গলবার বোলপুরের প্রাক্তন সাংসদ ও বিশ্বভারতী-প্রাক্তনী ড: অনুপম হাজরা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে  ‘রবীন্দ্রনাথকে বহিরাগত বলাটা তার কাছে শ্রুতিমধুর হয়নি’ জানালেও বুধবার সেই প্রসঙ্গ টেনে তিনি আর একটি পোস্ট করেন। তিনি লেখেন তার সঙ্গে উপাচার্যের বেশ কিছুক্ষন কথা হয়েছে। উপাচার্য বলেছেন, গোটা ঘটনায় তিনি বিব্রত ও অনুতপ্ত। তাই অনুপম হাজরা সমস্ত রবীন্দ্র- অনুরাগী, বিশ্বভারতী-প্রাক্তনী, আশ্রমিক তথা এবিভিপি এবং যুবমোর্চার কর্মকর্তাদের আবেদন করেছেন, বহিরাগত মন্তব্য নিয়ে যে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছিল তা উপেক্ষা করে পাঁচিল ভাঙার ঘটনায় দোষীদের শাস্তির দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যেতে । পাল্টা বিজেপিকে কটাক্ষ করে অনুব্রতর মন্তব্য, ” রবীন্দ্রনাথ তো শুধু ভারতের না, উনি তো গোটা দুনিয়ার। বিজেপি নেতাদের কি বিবেক নেই? একজন কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি রবীন্দ্রনাথকে নিয়ে এত নোংরা কথা বলল, আর সবাই চুপ!”  আসলে বিশ্বভারতী থেকে  রবীন্দ্রনাথকে মুছে দিতে চাইছেন ভিসি। না হলে কেউ শান্তিনিকেতনে রবীন্দ্রনাথ কে বহিরাগত বলে?

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button