দেশ

বিমল গুরুং ” কিসেনজি” হবেন না তো? প্রশ্ন অধীর চৌধুরীর।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক: ৩ বছর “ফেরার” থাকার পর বিমল গুরুং পদ্ম ছেড়ে জোড়া ফুলের হাত ধরার কথা ঘোষনা করেছেন। আর তারপর থেকেই  বিমল-বিনয় দ্বন্দ্বে তোলপাড় পাহাড়।  মিছিল পাল্টা মিছিলে ফের পাহাড়ে অশান্তির মেঘ। এমনকী আজই নবান্নে এসে একদা “গুরু” বিমল গুরুংয়ের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন বিনয় তামাং। এমনকি বিমল গুরুংকে ” রাজনৈতিক অপরাধী” বলেও কটূক্তি করেছেন তিনি। আর পাহাড়ের এই রাজনৈতিক দোলাচল নিয়ে মঙ্গলবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একহাত নিলেন লোকসভার কংগ্রেস দলনেতা অধীর চৌধুরী। এদিন নিজের ফেসবুক একাউন্টে তিনি লেখেন, “মোদি আর দিদি দার্জিলিং পাহাড় কে ‘রাজনীতির আহার’ বানাচ্ছে।” প্রায় ৩ বছর ফেরার থাকার পর আচমকা  শহরে এসে প্রকাশ্যে সাংবদিক সম্মেলন করেন প্রাক্তন মোর্চা সুপ্রিমো ইউএপিএ তে অভিযুক্ত বিমল গুরুং। দিদির কথা আর কাজের ফারাক ― বাংলার মানুষ দেখছেন, সেদিন বিমল ছিল দিদির চোখে ‘দেশদ্রোহী’, আর এখন দিদির ‘পাহাড়ি দেশপ্রেমিক’। এই রাজনৈতিক ডিগবাজি দিদির কাছে শিখতে পারেন! বিমল জি, আপনি আবার বাংলার দিদির “কিষেন জি” হবেন না তো !!!

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen − seven =

Back to top button