দেশ

দিল্লির বিমানবন্দরে রাজকীয় অভ্যর্থনায় অভিভূত মুকুল রায়।

নিউস বেঙ্গল 365,নিউ দিল্লি: বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি মুকুল রায় বুধবার দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে নেমেই খানিকটা হতচকিত হয়ে যান। বিমান থেকে নেমে এরোব্রিজ দিয়ে বেরোতেই সামনে দাঁড়িয়ে আছেন ভোজপুরি সিনেমার দুই জনপ্রিয় অভিনেতা বিজেপির দুই সাংসদ মনোজ তিওয়ারি ও রবি কিষাণ। তাঁদের কাছ থেকে রাজকীয় সংবর্ধনা পেলেন বঙ্গ রাজনীতির চাণক্য মুকুল রায়। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি হওয়ার পর এদিনই প্রথম দিল্লি গেলেন মুকুল রায়। তাঁর জন্য যে এমনই সম্মান অপেক্ষা করে আছে, তা ঘুনাক্ষরেও টের পাননি তিনি।বৃহস্পতিবার বঙ্গ বিজেপি নিয়ে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার ডাকা বৈঠকে যোগ দিতেই দিল্লিতে এলেন মুকুল রায়। এই বৈঠকে থাকার কথা বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়, সর্বভারতীয় সম্পাদক শিব প্রকাশ এবং অরবিন্দ মেননেরও। কলকাতা থেকে আসছেন সম্পাদক পদ থেকে সদ্য অপসারিত অভিমানী রাহুল সিনহাও।সূত্রে খবর আগামী বিধানসভা ভোটের দিকে তাকিয়ে এদিনের বৈঠকে কমিটি গড়ে দেবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। এই কমিটির নেতৃত্বে কে থাকেন, তা নিয়ে জল্পনা তৈরি হলেও আশা করা যাচ্ছে পদাধিকারবলে কৈলাশ বিজয়বর্গীয়রও উপরে থাকা মুকুল রায় এই কমিটির মাথায় থাকতে পারেন। এর আগে কোনও পদে না থাকেই বাংলার পঞ্চায়েত নির্বাচনে তাঁর নেতৃত্বে কমিটি গঠিত হয়েছিল। পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর লোকসভা নির্বাচনেও মুকুল রায় নির্বাচন কমিটির আহ্বায়ক পদে ছিলেন। যদিও মুকুল রায় এ ব্যাপারে বলেন, ‘দল যা দায়িত্ব দেবে তা মাথা পেতে নেব। মোদীজি, অমিতজি, নাড্ডাজি আমার উপর আস্থা রেখেছেন এটাই সবথেকে বড় কথা। ‘তিনি আরো বলেন, ‘বিমানবন্দরে নেমে যে সংবর্ধনা পেয়েছি, তাতে আমি আপ্লুত, আর বেশি কিছু চাই না। যে মর্যাদা আমাকে দেওয়া হয়েছে বিজেপির তরফে , তা কোনওদিনও ভুলব না।’ 

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button