দেশ

এই রায়ে আপমানিত বোধ করছি: আসাদউদ্দিন ওয়েইসি।

নিউজ বেঙ্গল ৩৬৫ ডেস্ক: “মসজিদ ভাঙার দিন যেরকম অপমানিত বোধ করছিলাম আজও সেই একই অনুভব হচ্ছে।’ বুধবার বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলার রায় নিয়ে নিজের এভাবেই নিজের মত প্রকাশ করলেন এআইএমআইএম প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়েইসি।বুধবার দুপুরে বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলার রায় দেন লখনউের বিশেষ সিবিআই আদালত। ৩২ জন অভিযুক্তকে বেকসুর খালাস করে দিয়ে জানায়। তবে এদিন বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আডবানীকে আক্রমণ করে হায়দরাবাদের সাংসদ বলেন, ‘হিংসা ওনাকে রাজনৈতিক সুবিধা পাইয়ে দিয়েছে। আপনারা সবাই খুব ভাল করেই জানেন যে যখনই আডবানী রথযাত্রা বের করেছেন তখন রক্তপাত ঘটেছে। তাই এই রায় হিন্দুত্ববাদের যারা অনুগামী একমাত্র তাদেরই সন্তুষ্ট করবে। আমি তো ১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর যেরকম অপমানিত বোধ করছিলাম সেরকমই অনুভব করছি।’ তবে এখানেই শেষ নয়, এদিন সুপ্রিম কোর্টের প্রসঙ্গ উত্থাপন করে তিনি বলেন, ‘এই ঘটনা সম্পর্কে সুপ্রিম কোর্ট বলেছিল একটি প্রার্থনার জায়গাকে ধ্বংস করার জন্য আগে থেকে পরিকল্পনা করা হয়েছিল। আমি কিছুতেই বুঝতে পারছি না যে যদি এই ঘটনার ফলে আইনভঙ্গ না হয়ে থাকে তাহলে কি ডিসেম্বরের ৬ তারিখ জাদু বলে মসজিদটি ধ্বংস হয়েছিল? ১৯৪৯ সালের ২৮ ও ২৯ ডিসেম্বর রাতে কি ওখানে জাদুর সাহায্যে মূর্তিগুলি রাখা হয়েছিল? রাজীব গান্ধী যখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তখন জাদুর সাহায্যে তালা খোলা হয়েছিল?’আজ ভারতের বিচার ব্যবস্থার ‘কালো দিন’ বলে দাবি করে এই রায় অভিযুক্তদের সাহস যোগাবে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেন হায়দরাবাদের সাংসদ।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button