দেশ

ধলাই আমবাসা কোভিড কেয়ার সেন্টার পরিদর্শনে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব

নিউস বেঙ্গল 365, আগরতলা: আজ ধলাই ত্রিপুরা জেলা আমবাসা কোভিড কেয়ার সেন্টার পঞ্চায়েত রাজ ট্রেনিং ইন্সটিটিউট পরিদর্শনে যান ত্রিপুরা রাজ্যের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। ধলাই জেলার আমবাসায় সেখানকার কোভিড-19 পরিস্থিতি নিয়ে মন্ত্রী মনোজ কান্তি দেব, স্থানীয় প্রশাসনিক আধিকারিক,DM,SDM ও স্বাস্থ্য আধিকারিকদের সঙ্গে এক বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব ধলাই DM অফিসে। “রাজ্যের জেলাগুলির স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে আরও শক্তিশালী করার জন্য পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। কারণ দূরের জেলাগুলি থেকে রোগীকে আগরতলা পাঠাতে 4-5 ঘণ্টা সময় লেগে যায়। যার ফলে সমস্যা বেশি হয়। ধলাইতে প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রকে দু’দিনের মধ্যে 15 বেডের কোভিড কেয়ার হাসপাতাল হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে। আগরতলা থেকে পাঠিয়ে দেওয়া হবে অক্সিজেন বেড। জরুরি বিভাগে যে ইঞ্জেকশন প্রয়োজন তাও পাঠিয়ে দেওয়া হবে আগরতলা জিবি হাসপাতাল থেকে। আমবাসাতে 335টি শয্যাবিশিষ্ট কোভিড হাসপাতাল রয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে 5টি অক্সিজেন বেড। আরও 15টি অক্সিজেন বেড বাড়ানো হচ্ছে। 25 টি অক্সিমিটার রয়েছে এই হাসপাতালে। হোম আইসোলেশন এর জন্য সরবরাহ করা হয়েছে 100টি অক্সিমিটার যন্ত্র।মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব আরো বলেন যে,আড়াই বছর পূর্ণ করল আমাদের বিজিপি সরকার। ত্রিপুরার সাধারণ মানুষ আমাকে, আমাদের বিজেপি সরকারকে যে দায়িত্ব দিয়েছিলেন, প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীজির নেতৃত্বে সরকার গড়েছিলেন, আমরা তা নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করার চেষ্টা করছি বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। এমন অনেক কাজ চলছে যা ভিশন ডকুমেন্টে ছিল না। স্বনির্ভর ত্রিপুরা গড়ে তোলা থেকে ছোট ছোট দোকানিকে নিজের পায়ে দাঁড় করানোর মতো কর্মসূচি বাস্তবায়িত হচ্ছে ত্রিপুরা রাজ্যে। বিরোধী বন্ধুরা ভাবেন, তাঁরা যে ভাবে চালিয়ে গিয়েছেন সেটাই বোধহয় সিস্টেম। এত বিমান আসছে, ট্রেন আসছে ত্রিপুরায়, নদী পথে বাণিজ্য শুরু হয়েছে, সব দিক থেকেই ত্রিপুরা এগিয়ে চলেছে সামনের দিকে। এখন এই কোভিড পরিস্থিতিতে আলোচনা-সমালোচনার সময় নয়। এখন মানুষের জীবন বাঁচাতে হবে বললেন ত্রিপুরা রাজ্যের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button