দেশ

বাংলাদেশ থেকে প্রথম জলপথে সিমেন্ট এসে পৌছালো ত্রিপুরায়।

নিউস বেঙ্গল 365, আগরতলা: এক ইতিহাসিক মুহূর্তের সাক্ষী থাকলো সোনামুড়ার মানুষ। সোনামুড়ার গোমতী নদীতে নৌ- বন্দরে জেটিতে বাংলাদেশ থেকে প্রথম ছোট জাহাজ প্রায় 50 টন সিমেন্ট নিয়ে এসে পৌঁছায়। সোনামুড়ার গোমতী নদীতে নৌ-ব্ন্দরে বাংলাদেশ থেকে প্রথম ছোট জাহাজকে স্বাগত জানান ত্রিপুরা রাজ্যের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। ঐতিহাসিক এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিম ত্রিপুরা লোকসভা আসনের সাংসদ শ্রীমতি প্রতিমা ভৌমিক মহোদয়া, বিধায়ক সুভাষ দাস সহ অন্যান্য উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা। এদিন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব বলেন যে, এটি একটি ঐতিহাসিক মুহূর্ত। আলোচনা-সমালোচনা নিন্দা যা কিছুই হোক না কেন,গত 25 বছরে তৎকালীন সিপিআইএম সরকার নৌপথে বা জলপথে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে বাণিজ্য স্থাপন বা জলপথে ব্যবসা-বাণিজ্যের নতুন পথ খুলতে পারেননি বা খোলার কোন উদ্যোগ নেয়নি। 25 বছরে তৎকালীন সিপিআইএম সরকারের শাসনে সোনামুড়া বিখ্যাত ছিল গাঁজা চাষে আর ফেনসিডিল পাচারে। তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের আমলে গাঁজা চাষ থেকে শুরু করে বিভিন্ন অপরাধজনিত ঘটনা বেড়েই চলছিল। কিন্তু আজ সময় বদলে গেছে। মানুষ সিপিআইএম সরকারকে ছুঁড়ে ফেলে দিয়েছে। বর্তমানে বিজেপি সরকার গরীব মানুষের সরকার ত্রিপুরা রাজ্যের উন্নয়নের জন্য বর্তমান বিজেপি সরকার কাজ করে চলছেন। তিনি বলেন বাংলাদেশ থেকে প্রথম ট্রায়াল’ জাহাজ সোনামুড়া নদী বন্দরে স্বাগত জানাতে পেরে মুখ্যমন্ত্রী খুব আনন্দিত।। ভারত-বাংলাদেশের বন্ধুত্বের এক নতুন অধ্যায় শুরু হয়েছে আজ। ভারতের প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদিজি বলেছিলেন, ‘আচ্ছে দিন আয়েঙ্গে’ আজ ত্রিপুরার জন্য সেই আচ্ছে দিন। তার জন্য তিনি দেশের লোকপ্রিয় প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদিকে ধন্যবাদ জানাই। সেই সঙ্গে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেও অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button